আন্তর্জাতিক

জঙ্গি শামীমা পাচার, নেপথ্যে যৌনতা

সান নিউজ ডেস্ক: শামীমার আইনজীবীরা বলেছেন, ২০১৯ সালে যুক্তরাজ্যের সে সময়কার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ শামীমার ব্রিটিশ নাগরিকত্ব বাতিলের যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন তা বেআইনি। কারণ, শামীমা পাচারের শিকার হওয়ার সময় শিশু ছিলেন কিনা সে বিষয়টি বিবেচনায় আনা হয়নি। শামীমার বয়স এখন ২৩ বছর।

আরও পড়ুন: কলম্বিয়ায় বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৮

২০১৫ সালে মাত্র ১৫ বছর বয়সে ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দিতে লন্ডন থেকে সিরিয়ায় পাড়ি জমান শামীমা বেগম। জঙ্গিবাদে জড়ানোর অভিযোগে ২০১৯ সালে খুয়েছেন ব্রিটিশ নাগরিকত্ব।

এবার তার আইনজীবীদের দাবি, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শামীমা বেগম যৌন নিগ্রহের জন্য মানবপাচারের শিকার হয়েছিলেন। বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: রাজস্ব আদায়ে ঘাটতি ৬০০০ কোটি টাকা

সোমবার (২১ নভেম্বর) যুক্তরাজ্যের ‘স্পেশাল ইমিগ্রেশন আপিলস কমিশন’ (এসআইএসি)-এ শামীমার আইনজীবীরা এ ধরনের যুক্তি তুলে ধরেন। যুক্তরাজ্যের নাগরিকত্ব অপসারণকে চ্যালেঞ্জ করার বিষয়টি নিয়ে পাঁচ দিনের অভিবাসন শুনানি চলছে সেই আদালতে।

এদিকে, যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, তার নাগরিকত্ব ফিরিয়ে দিলে জননিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠবে।

শামীমা উত্তর সিরিয়ার একটি শরণার্থী শিবিরে আছেন। ২০১৯ সালে সেখানে প্রথম তার খোঁজ মেলে। সেখানে তার একটি সন্তানও হয়েছিল, যদিও পরে শিশুটি মারা যায়। শামীমা সে সময় জানান, এটি তার তৃতীয় সন্তান।

তবে শামীমাকে কানাডার নিরাপত্তা সংস্থার এক গুপ্তচর সিরিয়ায় পাচার করেছিল বলে গত আগস্টে সংবাদ প্রকাশ করে বিবিসি। তাদের কাছে এমন কিছু নথিও আছে, যাতে এই গুপ্তচর দাবি করেন, তিনি শামীমা বেগমের পাসপোর্টের বিস্তারিত তথ্য কানাডাকে জানিয়েছিলেন এবং আরও ব্রিটিশ নাগরিককে লড়াই করার জন্য পাচার করেন।

আরও পড়ুন: জাভায় ভূমিকম্প, নিহত বেড়ে ১৬২

পূর্ব লন্ডনের তিন স্কুলছাত্রী শামীমা বেগম, খাদিজা সুলতানা ও আমিরা আবাসি ২০১৫ সালে সিরিয়ায় পাড়ি জমান। ইস্তাম্বুলের প্রধান বাস স্টেশনে তাদের সঙ্গে মোহাম্মদ আল রশিদ নামে এক ব্যক্তির দেখা হয়। এই ব্যক্তি তাদের সিরিয়ায় আইএস নিয়ন্ত্রিত এলাকায় যেতে সাহায্য করেন। জানা গেছে, মোহাম্মদ আল রশিদ যখন এভাবে সিরিয়ায় লোকজনকে পাচার করছিলেন, তখন তিনি কানাডার একটি নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার কাছে তথ্য পাঠাতেন।

সান নিউজ/এনকে

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

সারিকাকে মারধর, স্বামীর বিরুদ্ধে পরোয়ানা

সান নিউজ ডেস্ক: ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও মডেল সারিকা স...

মুন্সীগঞ্জে বেস্ট মেডিকেল সার্ভিস সিলগালা

নাজির হোসেন, মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জে বেস্ট মেডিকেল সার্ভিস ক...

আলফাডাঙ্গায় নৌকা পেলেন যারা

কামরুল সিকদার, বোয়ালমারী (ফরিদপুর) :

উলিপুরে করাত কলে শ্রমিকের হাত ও জিহ্বা বি‌চ্ছিন্ন!

কামরুজ্জামান স্বাধীন, উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প...

বিশ্বে কমেছে শনাক্ত ও মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৪...

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে জয় পেল ঘানা

স্পোর্টস ডেস্ক : দক্ষিণ কোরিয়াকে...

২৫ পুলিশ কর্মকর্তা বদলি

সান নিউজ ডেস্ক: সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পদমর্যাদার ২৫ কর্...

চীন-যুক্তরাজ্য সম্পর্কের ‘স্বর্ণযুগ’ শেষ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বৃটেনের নতুন...

গাজীপুরে ১১ ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি আগুন

সান নিউজ ডেস্ক : গাজীপুর সদর উপজে...

ফের আদালতে পরীমণি

সান নিউজ ডেস্ক: গতবছর ৮ জুন ঢাকার পাশের বিরুলিয়ায় তুরাগ তীরে...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা