ছবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক

নাইজারে বিদ্রোহীদের হামলা, নিহত ১২ 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নাইজারের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে সশস্ত্র বিদ্রোহীদের হামলায় অন্তত ১২ সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন।

আরও পড়ুন: ইউক্রেনে রুশ হামলায় ৩ নারী নিহত

শুক্রবার (২৯ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, পশ্চিম আফ্রিকার এ দেশটিতে মোটরবাইকে করে আসা শত শত সশস্ত্র বিদ্রোহী সেনাদের ওপর হামলা চালালে এ প্রাণহানি ঘটনা ঘটে।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতির বরাত দিয়ে রয়টার্স বলছে, বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকালে নাইজারের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে মোটরবাইকে করে শত শত সশস্ত্র বিদ্রোহীর হামলায় কমপক্ষে ১২ জন সেনা নিহত হয়েছে।

আরও পড়ুন: নেদারল্যান্ডসে বন্দুক হামলা, নিহত ৩

বিদ্রোহীর হামলার জেরে সৃষ্ট লড়াইয়ে ৭ সেনা নিহত হয়েছে। হামলার শিকার ইউনিটকে সাহায্য করার জন্য ঘটনাস্থলে যাওয়ার সময় গাড়ি দুর্ঘটনায় অন্য ৫ জন নিহত হয়।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, রাজধানী নিয়ামে থেকে প্রায় ১৯০ কিলোমিটার দূরে মালি, বুরকিনা ফাসো ও নাইজারের ত্রি-সীমান্ত অঞ্চলের কাছে কান্দাদজিতে এ ঘটনা ঘটে। গত কয়েক বছরে সাহেল অঞ্চলে ইসলামি বিদ্রোহের কেন্দ্রস্থল হিসেবে পরিচিত এলাকাটি।

আরও পড়ুন: আটকে পড়া নভোচারীরা ফিরলেন

একজন সিনিয়র সামরিক কর্মকর্তাসহ নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে ৩ টি সূত্র বৃহস্পতিবার রয়টার্সকে জানিয়েছে, সশস্ত্র বিদ্রোহীদের হামলায় অন্তত ১০ সেনা নিহত হয়েছে। যদিও এ হামলায় কারা জড়িত, তা এসব সূত্র বা নাইজারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়নি।

অবশ্য আল কায়েদা ও ইসলামিক স্টেটের সহযোগীরা এ অঞ্চলে সক্রিয় রয়েছে। প্রায়ই সৈন্য ও বেসামরিক নাগরিকদের তারা ওপর আক্রমণ চালিয়ে থাকে।

আরও পড়ুন: দেশে ফিরলেন সেনাপ্রধান

নাইজারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, প্রায় ১০০ বিদ্রোহী নিহত হয়েছে। তাদের মোটরবাইক ও অস্ত্র ধ্বংস করা হয়েছে। এর বেশি আর কোনো বিবরণ মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া হয়নি।

অপরদিকে ২ টি নিরাপত্তা সূত্র বলছে, নাইজারের সেনাবাহিনী স্থল সেনাদের পাশাপাশি হেলিকপ্টার দিয়ে পাল্টা হামলা চালিয়ে বিদ্রোহীদের আক্রমণের জবাব দিয়েছে। এ সময় হেলিকপ্টারগুলোর মধ্যে ১ টিতে বিদ্রোহীরা আঘাত হানলেও সেটি ঘাঁটিতে ফিরে আসতে সক্ষম হয়।

আরও পড়ুন: ঢাকায় দূতাবাসের নিরাপত্তা নিশ্চিতের আহ্বান

প্রসঙ্গত, গত জুলাই মাসে নাইজারের ক্ষমতাসীন সামরিক জান্তা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে। খারাপ নিরাপত্তা পরিস্থিতি ও সাধারণ মানুষের মধ্যে অসন্তুষ্টির কারণে তারা অভ্যুত্থান ঘটায়। প্রতিবেশী দেশ মালি ও বুরকিনা ফাসোতেও গত ৩ বছরে দুটি করে অভ্যুত্থান হয়েছে।

চলতি বছরের আগস্টের মাঝামাঝি দক্ষিণ-পশ্চিম নাইজারে আরেকটি হামলায় কমপক্ষে ১৭ সেনা সদস্য নিহত হয়েছিল।

আরও পড়ুন: রূপপুরে যাচ্ছে ইউরেনিয়াম, বাস চলাচল বন্ধ

গত এক দশক ধরে মালির মধ্যাঞ্চল, বুরকিনা ফাসোর উত্তরাঞ্চল ও পশ্চিম নাইজারে সশস্ত্র গোষ্ঠীর সহিংসতার কেন্দ্র হয়ে উঠেছে। সাহেল অঞ্চলে সক্রিয় স্থানীয় সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর সাথে মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আল-কায়েদা ও আইএসের সম্পর্ক রয়েছে।

সান নিউজ/এনজে

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নির্বাচন সম্পন্ন

কামরুল সিকদার, বোয়ালমারী (ফরিদপুর) : ফরিদপুর জেলার সদর ইউনিয়...

শরীয়তপুরে ৩ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের ভে...

লক্ষ্মীপুরে গুলিবিদ্ধ ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু 

সোলাইমান ইসলাম নিশান, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি...

চলমান যুদ্ধ পরিস্থিতি নজর রাখার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মধ্যপ্রাচ্যে সৃষ্...

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় হঠাৎ বৃষ্টি জনজীবন...

রাতে এক ঘণ্টা বন্ধ থাকবে ইন্টারনেট 

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ দিবাগত রাতে কুয়াকাটায় স্থাপিত দেশের দ্ব...

৭১ বছর পর দেখা যাবে বিরল ধূমকেতু 

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ২১ এপ্রিল বহুল কাঙ্ক্ষিত ধূমকেতু 12P...

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় হঠাৎ বৃষ্টি জনজীবন...

শরীয়তপুরে ৩ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের ভে...

চলমান যুদ্ধ পরিস্থিতি নজর রাখার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মধ্যপ্রাচ্যে সৃষ্...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা