অ্যাঞ্জেলা মেরকেল
আন্তর্জাতিক

শরণার্থী পুরস্কার পাচ্ছেন অ্যাঞ্জেলা

সান নিউজ ডেস্ক: জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) নানসেন শরণার্থী পুরস্কার পাচ্ছেন জার্মানির সাবেক চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মেরকেল।

আরও পড়ুন: মিয়ানমারের সাহস নেই কিছু করার

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় নানসেন শরণার্থী পুরস্কারের জন্য মেরকেলের নাম ঘোষণা করে ইউএনএইচসিআর।

ইউএনএইচসিআর জানায়, সিরিয়ায় মারাত্মক সংঘাতের মধ্যে তৎকালীন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মেরকেল ২০১৫-২০১৬ সালে ১২ লাখের (১.২ মিলিয়ন) বেশি শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছিলেন। শরণার্থীদের আশ্র‍য় দেওয়ার জন্য ম্যার্কেলকে নানসেন শরণার্থী পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে। আগামী ১০ অক্টোবর জেনেভায় এক অনুষ্ঠানে সাবেক জার্মান চ্যান্সেলরকে এ পুরস্কার দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: বাস খাদে, নিহত ২৫

সংস্থাটি বলছে, সে সময়ে জার্মান চ্যান্সেলর বলেছিলেন, এটি এমন একটি পরিস্থিতি যা আমাদের ইউরোপীয় মূল্যবোধকে পরীক্ষায় ফেলেছে, যা এর আগে খুব কমই হয়েছে। এটি মানবিক বাধ্যবাধকতার চেয়ে বেশি। তিনি তার সহকর্মী জার্মানদের বিভক্ত জাতীয়তাবাদ প্রত্যাখ্যান করার আহ্বান জানিয়েছিলেন। তার পরিবর্তে সহানুভূতিশীল এবং মুক্তমনা হওয়ার আহ্বান জানান।

চ্যান্সেলর পদে থাকাকালীন শরণার্থীদের আশ্রয় দেওয়া নিয়ে দেশটিতে সমালোচনার মুখে পড়তে হয় মেরকেলকে। এ নিয়ে দেশটিতে মেরকেল বিরোধীদের প্রচারণা হয়েছে প্রচুর।

ইউএনএইচসিআরের হাইকমিশনার ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি বলেন, সাবেক ফেডারেল চ্যান্সেলর আশ্রয়প্রার্থীদের সুরক্ষা ও মানবাধিকার, মানবিক নীতি ও আন্তর্জাতিক আইনের পক্ষে দাঁড়ানোর দৃঢ়তার প্রশংসা করছি। এক মিলিয়নেরও বেশি শরণার্থীকে বাঁচতে ও পুনর্নির্মাণে সহায়তা করার মাধ্যমে সাবেক চ্যান্সেলর নৈতিক ও রাজনৈতিকভাবে সাহস প্রদর্শন করেছিলেন।

আরও পড়ুন: শাকিবের সিনেমা থেকে বুবলী-পূজা বাদ!

প্রসঙ্গত, নরওয়ের খ্যাতনামা পর্যটক ফ্রিডজফ নানসেন শরণার্থীদের আশ্র‍য় দেওয়ার অবদানকে স্মরণীয় রাখতে ১৯৫৪ সালে নানসেন পুরস্কার চালু করে ইউএনএইচসিআর। এরপর থেকে প্রতিবছর এ পুরস্কার দেওয়া হয়। মূলত, এ পুরস্কারটি এমন একজন ব্যক্তি, গোষ্ঠী বা সংস্থাকে দেওয়া হয়; যারা শরণার্থী, অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত বা রাষ্ট্রহীন ব্যক্তিদের সুরক্ষায় ভূমিকা রাখেন।

সান নিউজ/এনকে

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

ইউক্রেনে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন ৬০ লাখ মানুষ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইউক্রেনের বিদ্যুৎ অবকাঠামো লক্ষ্য করে রাশ...

উন্নয়ন না দেখলে চোখের ডাক্তার দেখান

সান নিউজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যারা বাংলাদ...

মৃত্যুতে শীর্ষে ব্রাজিল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়ে আ...

স্কুলে বন্দুক হামলায় নিহত ৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ব্রাজিলের দক্ষিণপূর্ব অঞ্চলে দুটি স্কুলে...

বঙ্গবন্ধু টানেলের টিউব উদ্বোধন আজ

সান নিউজ ডেস্ক : দেশের কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মিত বঙ্গবন্ধ...

ক্ষমতা দখলের সুযোগ নেই

সান নিউজ ডেস্ক: ভোট ছাড়া অতীতের মতো বন্দুকের নল ঠেকিয়ে ক্ষমত...

নোয়াখালীতে গৃহবধূ হত্যা : স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর বে...

ডেঙ্গুতে আরও ৩ জনের মৃত্যু

সান নিউজ ডেস্ক: গত ২৪ ঘণ্টায় এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু জ্বরে আক্র...

বিচার চাইতে হাইকোর্টে সালাম মুর্শেদীর মেয়ে

সান নিউজ ডেস্ক: রিট মামলা বিচারাধীন থাকার পরও খুলনা-৪ আসনের...

হাসপাতালে শবনম ফারিয়া

সান নিউজ ডেস্ক: ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া শার...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা