বাণিজ্য
টাটা মটরস

ছোট বাণিজ্যিক গাড়ি টাটা ইনট্রা'র শুভ উদ্বোধন

নৌশিন আহম্মেদ মনিরা: টাটা মটরস এবং এর একমাত্র ডিস্ট্রিবিউটর নিটল মটরস আজ বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এলো নতুন প্রজন্মের পিকআপ ‘টাটা ইনট্রা’। বাংলাদেশে নতুন প্রজন্মের জন্য ছোট বাণিজ্যিক এই গাড়ির শুভ উদ্বোধন করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। ইমপ্যাক্ট 2.0 ডিজাইন ফিলোসোফির উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে এই গাড়িটি।

রোববার (১৭ অক্টোবর) ঢাকার সোনারগাঁও হোটেলে টাটা ইন্ট্রা পিকআপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী, নিটল-নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুল মাতলুব আহমাদ, টাটা মটরস লিমিটেডের ভাইস প্রেসিডেন্ট (ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ও স্ট্র‍্যাটিজি, সিভিবিইউ) অনুরাগ মেহেরোত্রাসহ সংশ্লিষ্টরা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে টাটা। টাটা বাংলাদেশের হৃদয়জুড়ে রয়েছে। টাটার সামাজিক দায়বদ্ধতা রয়েছে। তারা অনেক ভালো কাজ করছে।

বিক্রম দোরাইস্বামী বলেন, বাংলাদেশ দ্রুত উন্নয়নশীল একটি দেশ। বাংলাদেশের সব ধরনের উন্নয়নে সঙ্গী হতে চায় ভারত। সেই ধারাবাহিকতায় দুই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। নতুন নতুন যে কোনো ব্যবসার প্রসারে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত।

নিটল নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান আব্দুল মাতলুব আহমাদ বলেন, এখন পর্যন্ত আমাদের সাফল্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক হলো দৈশিক অভিজ্ঞতার সাথে শক্তিশালী ডিলার নেটওয়ার্ক এর সংযোজন। আমরা আত্নবিশ্বাসী যে, টাটা ইনট্রা এদেশের পিকআপের জগতে গুরুত্বপূর্ন প্রভাব ফেলবে এবং একটি উল্লেখযোগ্য মার্কেট শেয়ার দখল করতে পারবে।

তিনি বলেন, টাটা ইনট্রা'র ‘প্রিমিয়াম টাফ’ ডিজাইন শুধু যে, আধুনিক ও আকর্ষণীয় তা নয়, এটা অধিক পণ্য পরিবহন এবং অধিক উপার্জনের জন্য একটি যুগোপযোগী পিকআপ। আধুনিক প্রজন্মের ক্রেতাদের নিত্যনতুন প্র‍য়োজনকে লক্ষ্য রেখে ইনট্রার ডিজাইন করা হয়েছে। এটা তাদের জন্য, যারা স্বল্প বিনিয়োগে বেশি মুনাফায় আগ্রহী। পাশাপাশি ইনট্রা দেয় দুর্দান্ত পারফরম্যান্স যা অধিক উপার্জনের জন্য সহায়ক।

তিনি আরও বলেন, টাটা ইনট্রা'র মডুলার ডিজাইনের কারণে ব্যবসার ধরন অনুযায়ী বিভিন্ন রকমের বডি সহজে তৈরি করা যায়। যেমন- পানির জার, LPG সিলিন্ডার, ফ্রেশ মাছ প্রভৃতি পরিবহন করা, রেফ্রিজারেশন ভ্যান এবং আরও অনেক ধরনের বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহারের জন্য টাটা ইনট্রা খুবই উপযোগী।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে অনুরাগ মেহেরোত্রা বলেন, টাটা মটরসের বিভিন্ন রেঞ্জের বাণিজ্যিক গাড়িগুলো বাংলাদেশের গ্রাহকদের কাছে সুপরিচিত এবং নতুন নতুন মডেলের গাড়ি নিয়ে আসার এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। টাটা ইনট্রা তাদের জন্য একটি আদর্শ পিকআপ হয়ে উঠতে পারে, যারা ব্যবসায় বেশি উপার্জনের জন্য ছোট ধরনের বানিজ্যিক গাড়ি চাচ্ছেন। পরীক্ষিত, কার্যকরী ও নির্ভরযোগ্য যন্ত্রাংশের এই গাড়ির মালিক হওয়া যাবে স্বল্প খরচে। এটি দেবে দীর্ঘ ও ক্লান্তিহীন এক ড্রাইভিং এর অভিজ্ঞতা।

তিনি আরও বলেন, টাটা ইনট্রা'র মাধ্যমে এমন একটি শক্তিশালী মডেল আমরা নিয়ে আসছি, যেটি হবে তাদের জন্য যারা চাচ্ছেন সর্বোচ্চ মুনাফা ও সর্বনিম্ন রক্ষণাবেক্ষণ খরচ এবং আধুনিক ও আরামদায়ক কেবিন। আমরা নিশ্চিত যে, বরাবরের মতই নিটল মটরস অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে তার সেলস, ফাইন্যান্স ও বিক্রয়োত্তর সেবার সুবিধাগুলো টাটা ইনট্রা'র জন্য প্রদান করবে।

তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি যে, টাটা ইনট্রা বাংলাদেশের গ্রাহকদের একটি দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা প্রদান করবে, যেটি টাটা মটরসের অধিক কার্যকরী ও নির্ভরযোগ্য পণ্যের মাধ্যমে গ্রাহক সন্তুষ্টি অর্জনের বিষয়টিকে নিশ্চিত করবে।

টাটা ইনট্রা

টাটা ইনট্রাতে রয়েছে স্টেট অফ দ্যা আর্ট – পাওয়ার ট্রেইন প্রযুক্তি, যার সাথে রয়েছে গিয়ার শিফট অ্যাডভাইজর এবং সবচেয়ে বেশি ৪৫% গ্রেডিবিলিটি।

ইনট্রা'র দুটি ধরন বাংলাদেশে পাওয়া যাবে - V10 এবং V20। শক্তিশালী বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন এই গাড়ি এমনভাবে ডিজাইন করা হয়েছে, যা উদ্যোক্তা, পরিবহন মালিক এবং ক্রমবর্ধমান ই-কমার্স সেক্টরের পণ্য স্থানান্তরকে আরও সহজ করে দেয়। টাটা মটরসের ‘প্রিমিয়াম টাফ’ ডিজাইন ফিলোসোফির উপর ভিত্তি করে তৈরি ইনট্রা দেয় পাওয়ার প্যাকড পারফরম্যান্স এবং অধিক আয়ের সুযোগ, সাথে আছে নিরাপদ ও আরামদায়ক ড্রাইভিং এর অভিজ্ঞতা। তাছাড়া আমাদের রয়েছে দেশের সবচেয়ে বড় সেলস, সার্ভিস ও স্পেয়ার পার্টস নেটওয়ার্ক, যার সুবিধাগুলো ইনট্রা'র ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য থাকবে।

ইমপ্যাক্ট 2.0 ডিজাইন ফিলোসোফির উপর ভিত্তি করে তৈরিকৃত ইনট্রা বাংলাদেশের উদীয়মান অর্থনীতির গতি বৃদ্ধি করবে এবং দেশের পণ্য পরিবহন ব্যবস্থার নতুন চালিকাশক্তি হয়ে ওঠবে। টাটা ইনট্রা V20 এর গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্যগুলো, যেমন- ১১০০ কেজি পেলোড, ৭০বিএইচপি ও ১৪০ এনএম টর্কের পাওয়ারফুল কমন রেইল ইঞ্জিন, মজবুত চেসিস ও বড় লোডিং ডেক একে পরিনত করেছে পণ্য পরিবহনের জন্য উপযুক্ত পিকআপে। এতে আছে ১.৪ লিটার নির্ভরযোগ্য ও জ্বালানি সাশ্রয়ী ইঞ্জিন,যার সাথে যুক্ত আছে ফাইভ স্পীড ট্রান্সমিশন ও গিয়ার শিফট অ্যাডভাইজর ব্যবস্থা যার ফলে চালকরা দীর্ঘ সময় ধরে ড্রাইভিং করতে পারবে। এতে করে সার্বিক অপারেটিং খরচ কমে যাবে এবং লাভের পরিমানও বেড়ে যাবে। এর প্রাইভেট কারের মত ড্রাইভিং ব্যবস্থা এটিকে চালকদের জন্য করেছে আরামদায়ক, সুবিধাজনক এবং নিরাপদ। টাটা ইনট্রা'র সহজ পরিচালনা ব্যবস্থা ( টার্নিং রেডিয়াস মাত্র ৪.৭৫ মিটার), অধিক গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স, বেস্ট ইন ক্লাস ৪৫% গ্রেডিবিলিটি এবং রোবাস্ট সাসপেশন একে পরিনত করবে বাংলাদেশের পরিবেশ ও সড়ক ব্যবস্থার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত পরিবহনে।

টাটা মটরস
১০৯ বিলিয়ন ডলারের টাটা গ্রুপের অংশ টাটা মটরস লিমিটেড, যেটি বর্তমানে ৩৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের একটি প্রতিষ্ঠান এবং বিশ্বের অটোমোবাইল প্রস্তুতকারকদের মধ্যে প্রতিনিধিত্বকারী কোম্পানি, যা কার, ইউটিলিটি ভেহিক্যালস, পিকআপ, ট্রাক এবং বাস তৈরি করে, পাশাপাশি প্রদান করছে বিভিন্ন ধরনের সমন্বিত, স্মার্ট ও ই- মোবিলিটি সল্যুশনস। ‘কানেক্টিং এসপিরেশন্স’ এই প্রতিপাদ্যকে ব্রান্ড প্রমিসের মূল জায়গায় রেখেছে টাটা মটরস এবং এটি বর্তমানে ভারতের বাণিজ্যিক গাড়ির ক্ষেত্রে মার্কেট লিডার ও প্রাইভেট কারের ক্ষেত্রে প্রথম তিনের মধ্যে অবস্থান করছে।

টাটা মটরস সবসময়ই চেষ্টা করে আসছে নতুন নতুন পণ্য নিয়ে আসতে, যেগুলো নতুন প্রজন্মের ক্রেতাদের কল্পনাকে নাড়া দেবে এবং এই গাড়ি গুলোর ডিজাইন করা হয় স্টেট অফ দ্যা আর্ট ডিজাইন এবং আর এন্ড ডি সেন্টারগুলোতে (ইন্ডিয়া, ইউকে, ইউএস, ইতালি এবং দক্ষিণ কোরিয়ায় অবস্থিত)। প্রকৌশল ও প্রযুক্তি নির্ভর অটোমোটিভ সল্যুশন উপর গুরুত্ব প্রদান করে, কোম্পানি তার উদ্ভাবনী প্রচেষ্টাকে উদাহরণমূলক প্রযুক্তি তৈরির জন্য ব্যবহার করছে যেগুলো হবে স্থায়ী এবং মার্কেট ও গ্রাহকদের প্রত্যাশার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। টাটা মটরস ইন্ডিয়াতে ইলেকট্রিক গাড়ির রূপান্তর ব্যবস্থার প্রবর্তক।

১০৩ সাবসিডিয়ারিস, ৯ সহযোগী প্রতিষ্ঠান, ৪ জয়েন্ট ভেঞ্চার এবং ২ জয়েন্ট অপারেশনের সমন্বয়ে গঠিত একটি শক্তিশালী গ্লোবাল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে টাটা মটরস তার অপারেশন চালাচ্ছে ইন্ডিয়া, ইউকে, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড, সাউথ আফ্রিকা এবং ইন্দোনেশিয়ায়। টাটা মটরসের বাণিজ্যিক ও প্যাসেঞ্জার ভেহিক্যালগুলো বাজারজাত হচ্ছে আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য, দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আমেরিকা, রাশিয়া এবং অন্যান্য CIS দেশগুলোতে।

নিটল মটরস
নিটল নিলয় গ্রুপের প্রধান অংগ সংস্থা হলো নিটল মটরস লিমিটেড, যা ১৯৮৮ সাল থেকে বাংলাদেশে টাটা মটরসের সহযোগী হিসেবে কাজ করে আসছে এবং সবচেয়ে বেশি মার্কেট শেয়ার নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি দেশের বানিজ্যিক গাড়ির জগতে প্রতিনিধিত্ব করে আসছে। একটি গতিশীল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে আশির দশকে যাত্রা শুরু করে নিটল মটরস। দেশের পরিবহন খাতের আমূল পরিবর্তনের প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করে টাটা মটরসকে সাথে নিয়ে নিটল মটরস শুরু করে এক সুদীর্ঘ যাত্রা। একটি প্রতিশ্রুতিশীল গ্রাহকসেবার কারণে নিটল মটরস আজ একটি সুপরিত নাম। মাত্র ২০ বছরেরও কম সময়ে সেবার উৎকর্ষ দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি অর্জন করেছে ক্রেতাদের অকৃত্রিম ভালোবাসা ও আস্থা (customer testimonial)।

বর্তমানে বাংলাদেশে আমাদের রয়েছে সার্ভিস ও স্পেয়ার পার্টস এর সবচেয়ে শক্তিশালী নেটওয়ার্ক- যা গড়ে উঠেছে ৬৮ সার্ভিস আউটলেট এবং সাতশো'র অধিক স্পেয়ার পার্টস আউটলেট নিয়ে। দেশের প্রতিটি কোনায় পৌঁছে দিয়েছি আমাদের বিক্রয়োত্তর সেবার পরিধি যা গ্রাহকদের দিচ্ছে নির্ভাবনায় পথ চলার অভিজ্ঞতা।

দেশের মানুষের কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য নিটল মটরস টাটা মটরসকে সাথে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের মদনপুরে একটি মেকানিক ট্রেনিং স্কুল স্থাপন করেছে। এছাড়া সঠিকভাবে ড্রাইভিং প্রশিক্ষণের জন্য কিশোরগঞ্জে নির্মাণ করেছে ড্রাইভিং ট্রেনিং স্কুল।

বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়ন এবং জাতীয় অর্থনীতিতে অনবদ্য অবদান রেখে চলেছে নিটল মটরস। জাতীয় রাজস্বখাতে অপরিসীম ভূমিকার কারণে ২০১৭ সালে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক মর্যাদাপূর্ণ কর বাহাদুর স্বীকৃতিতে ভূষিত হয় নিটল-নিলয় পরিবার।

সান নিউজ/এনএএম

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

নাটোর জেলা সমিতি, ঢাকার নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানী ঢাকায় ব...

সফলতার সূত্র শেখালেন পূর্ণিমা

বিনোদন ডেস্ক: ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা। সেই নব্বই...

শ্রীলেখার উপদেশ

বিনোদন ডেস্ক: টালিউডের লাস্যময়ী অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। ব...

টিভিতে আজকের খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক: আজ রোববার (৫ ডিসেম্বর) টিভিতে বেশ কিছু খেলা...

সৌদি আরবে স্বামীকে মাহির উষ্ণ চুম্বন

বিনোদন ডেস্ক: সৌদি আরবের পবিত্র ম...

সাগরে ৫দিন ধরে ভাসা ১৩ জেলে উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধি, নোয়াখালী: নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলার হাতিয়ার...

হাতিয়ার সঙ্গে সারাদেশের নৌ যোগাযোগ বন্ধ

নিজস্ব প্রতিনিধি, নোয়াখালী: ঘূর্ণিঝড় 'জাওয়াদ' এর ফলে...

সূচকের উত্থানে লেনদেন শেষ

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্...

করোনায় একদিনে মৃত্যু ৪, শনাক্ত ২৭৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ৪ জনের মৃত...

সাকিবের ছুটি মঞ্জুর করলো বিসিবি

ক্রীড়া প্রতিবেদক: আসন্ন টেস্টে ১৮ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাং...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা