ছবি-সংগৃহীত
লাইফস্টাইল

রেগে গেলেন তো মোটা হলেন!

লাইফস্টাইল ডেস্ক: আমাদের পরিবারে ও সমাজে কিছু মানুষ কারণে-অকারণে সারাক্ষণ রেগে থাকেন। অনেকক্ষেত্রে মূলত তারা নিজেও বুঝতে পারেন না, যে তারা হুটহাট রেগে যাচ্ছেন।

আরও পড়ুন: ডাবের পানি খেলে কি হয়?

রাগ বা ক্রোধ একটি মানসিক অবস্থা এবং এর সাথে শরীরের সম্পর্ক রয়েছে। যা মানুষের হরমোনকে প্রভাবিত করে। আর ক্রোধের কারণে হরমোনে যে প্রভাব পড়ে তার ফলে মোটা হওয়ার সম্ভাবনা বা আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। এক্ষেত্রে বলা যেতেই পারে রেগে গেলেন তো মোটা হলেন।

রাগ করার কারণে দেহের রক্তচাপ, হৃদস্পন্দন বেড়ে যেতে পারে। ফলে যে কারো জীবনে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। এসবের পাশাপাশি ওজন বৃদ্ধি পাওয়ার ঝুঁকি দীর্ঘমেয়াদে আপনার ক্ষতি করবে।

আরও পড়ুন: খেজুর খেলে যা হয়

রাগ দুই ধরনের দেখা যায়। ক্লিনিক্যাল বা মাঝেমাঝে রেগে যাওয়া- এ ধরনের ক্রোধ স্বাভাবিক ও প্রকৃতিগত। এ ধরনের ক্রোধ অনুভূতি যে কারোরই আসে এবং চলেও যায়। আর দীর্ঘস্থায়ী রাগ- যা ব্যক্তির মনে দীর্ঘক্ষণ থাকে এবং চরিত্রগত দিক থেকে ভয়ংকর হয়ে থাকে।

রাগের সঙ্গে ওজন বাড়ার সম্পর্ক:

প্রকৃতপক্ষে রাগ ক্ষুধা বৃদ্ধি করে। রেগে গেলে অনেকেই একসঙ্গে অধিক খাওয়া-দাওয়া করে থাকেন। আবার ক্রোধের কারণে অনেকেই দীর্ঘক্ষণ না খেয়েও থাকেন। ওজন বাড়ার ঝুঁকি দুই ক্ষেত্রেই রয়েছে।

ভারতের ওকহার্ড হসপিটালের মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. সোনাল আনন্দ বলেন, এটি বিবর্তনের একটি অংশ। একটি শিশু যখন কাঁদে তখন বেশিরভাগ সময় সন্তানের ক্ষুধা না থাকলেও কান্না থামানোর উপায় হিসেবে মা তাকে কিছু একটা খেতে দেন।

আরও পড়ুন: রসগোল্লা তৈরির রেসিপি

এই ঘটনাগুলো আমাদের মস্তিষ্কে এমনভাবে ঝেঁকে বসেছে যে, আমরা যখন রেগে যাই বা দুঃখিত হই তখন তা মোকাবিলার ব্যবস্থা হিসেবে খাবার গ্রহণ করি।

ডা. সোনাল আনন্দ বলেন, রাগ একটি প্রবৃত্তিজনিত ব্যপার একইভাবে খাওয়াও তাই। একই মস্তিষ্কে যখন রাগ কাজ করে তখন এর সমাধান হিসেবে আমরা খাবার বেছে নেই। ফলে ওজন বাড়ে।

ভারতীয় এই মনোচিকিৎসকের কথায় ডায়েটিশিয়ানরাও সম্মতি দিচ্ছেন।

আরও পড়ুন: স্যালাইনের বিকল্প কী হতে পারে?

ইন্ডিয়ার পরশ হসপিটালের ডায়েটিশিয়ান ডা. আশিমা চোপড়া বলেন, হ্যাঁ, রাগ ওজন বাড়াতে পারে। যখন কেউ রেগে যায় তখন শরীর থেকে কর্টিসল নামক হরমোন নির্গত হয়। এই হরমোনের ফলে আপনি হয় মারাত্মক ক্ষুধা অনুভব করবেন নতুবা একেবারেই ক্ষুধা লাগবে না।

ডা. আশিমা চোপড়া বলেন, যখন প্রচণ্ড ক্ষুধা লাগবে তখন আপনার হরমোন শুধুমাত্র উচ্চ কার্বন ও শর্করাজাতীয় খাবারেই নিঃসরণ হওয়া বন্ধ হবে। অন্যান্য স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খেলেও আপনার ক্ষুধা নিবারণ হবে না।

আরও পড়ুন: পেয়ারার জ্যামের রেসিপি

বস্তুত, শর্করা জাতীয় খাবার ছাড়া অন্যান্য স্বাস্থ্যসম্মত খাবার আপনার মেজাজ আরও বাড়িয়ে তুলতে পারে। আর শর্করা জাতীয় খাবার অধিক গ্রহণ করলে ওজন বাড়বেই। তথ্যসূত্র: হেলথশটসডটকম অবলম্বনে

সান নিউজ/এইচএন

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

ভোলায় রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের খাদ্য বিতরণ

ভোলা প্রতিনিধি : ভোলায় ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ব...

বিজিবির অভিযানে ভারতীয় মদ জব্দ

আবু রাসেল সুমন, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি : সীমান্তে সুরক্ষায় নিয়...

বিয়ে করলেন চমক

বিনোদন ডেস্ক : ছোট পর্দার অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমক। কোনো...

জরুরি নির্দেশনা দিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: বর্তমানে সারা দ...

গাড়িচাপায় প্রাণ গেল শ্রমিকের

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ভালুকায় গাড়িচাপায় রা...

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ১৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বিভিন্...

ছুরিকাঘাতে যুবক খুন

জেলা প্রতিনিধি: ফেনীতে ছুরিকাঘাতে এক যুবক নিহত হয়েছেন।...

আজ যেসব রাস্তা বন্ধ থাকবে

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ দেশের বৃহত্তম ও ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক প্র...

তুরস্কে বিশাল দাবানলে নিহত ১২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তুরস্কে ভয়াবহ দাবানলে কমপক্ষে ১২ জনের মৃ...

কলেজের দেয়াল ধসে আহত ১

জেলা প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে কলেজের সীমানা প্রাচীর ধস...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা