ছবি: সংগৃহীত
লাইফস্টাইল

কাঁচা আম খাওয়ার ৫ উপকারিতা

লাইফস্টাইল ডেস্ক : সারা বছরে পাকা আমের জন্য প্রতীক্ষা থাকলেও তার আগে আমরা কাঁচা আমের স্বাদ নিতে ভুলি না। স্বাদের পাশাপাশি কাঁচা আমের উপকারিতাও কম নয়।

আরও পড়ুন : গরমে ওজন কমানোর ৫ উপায়

কাঁচা আমের শরবত, চাটনি, আম দিয়ে ডাল, ভর্তা, আম পান্নার মতো পদ এই গরমে এনে দেয় স্বস্তি। তীব্র তাপপ্রবাহ থেকে বাঁচতেও সাহায্য করে কাঁচা আম।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, কাঁচা আমে থাকে পটাশিয়াম, যা গরমে শরীর ঠান্ডা রাখে।

আরও পড়ুন : স্বচ্ছ মুখ পেতে ভরসা রাখুন ১০ টোটকায়

এছাড়া পুষ্টিবিদেরা বলেন, প্রতি ১০০ গ্রাম কাঁচা আমে থাকে ৪৪ ক্যালরি পটাশিয়াম, ৫৪ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি এবং ২৭ মিলিগ্রাম ম্যাগনেশিয়াম।

জেনে নিন কাঁচা আম খাওয়ার ৫ টি উপকারিতা-

(১) ওজন কমাতে সাহায্য করে :

ওজন কমাতে চান এমন যে কারো জন্য উপকারী এই কাঁচা আম। পাকা আমের চেয়ে কাঁচা আমে ক্যালরি অনেক কম থাকে বলে ওজন কমানো সহজ হয়।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, কাঁচা আম খাবার হজমে সাহায্য করে। এটি অন্ত্রকে পরিষ্কার করে কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেয়। অ্যাসিডিটি, কোষ্ঠকাঠিন্য ও বদ হজমের সমস্যা দূর করতে কাঁচা আম খুবই কার্যকরী। এই আমে থাকে গ্যালিক অ্যাসিড, যা হজম প্রক্রিয়া সহজ করে। এটি খাদ্যনালীতে বিভিন্ন পাচক উৎসেচকের ক্ষরণ বাড়ায়।

আরও পড়ুন : গরমে চা নাকি কফি?

(২) শরীর ঠান্ডা রাখে :

রোদের প্রখর তাপের কারণে শরীর ঠান্ডা রাখা মুশকিল হয়ে পড়ে। কাঁচা আম হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি কমিয়ে আনে। এই ফল আমাদের শরীরের সোডিয়াম ক্লোরাইড ও আয়রনের ঘাটতি পূরণ করতেও দারুণ কার্যকরী।

এতে থাকা পটাশিয়াম শরীরকে ভেতর থেকে ঠান্ডা রাখে বলে ঘাম কম হয়। এছাড়া ক্লান্তিও কমে আসে।

(৩) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় :

কাঁচা আমে থাকা ভিটামিন সি, ভিটামিন ই এবং একাধিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট নানাভাবে শরীরের উপকার করে। এসব উপাদান আমাদের শরীরে শ্বেত রক্তকণিকার কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে। ফলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

ডায়াবেটিসের রোগীদের জন্য উপকারী একটি ফল হতে পারে কাঁচা আম। লিভার ভালো রাখতেও কাজ করে এই ফল। কাঁচা আম চিবিয়ে খেলে পিত্তরস বৃদ্ধি পায়। এটি অন্ত্রের জীবাণু দূর করতেও কাজ করে।

আরও পড়ুন : ঘরের পোকা-মাকড় দূর করার উপায়

(৪) ত্বক ও চুল ভালো রাখে :

কাঁচা আম আমাদের ত্বক ও চুল ভালো রাখতে কাজ করে। গরমে ঘামের কারণে আমাদের শরীর থেকে সোডিয়াম ক্লোরাইড ও লৌহ বের হয়ে যায়। আপনি যদি কাঁচা আমের জুস তৈরি করে খান, তাহলে এই ঘাটতি দূর করা সম্ভব হতে পারে। কাঁচা আমে থাকে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। ফলে এটি খেলে তা ত্বক ও চুলের উজ্জ্বল ধরে রাখতে কাজ করে।

(৫) ঘামাচি দূর করে :

গরমে অনেকের ঘামাচির সমস্যা দেখা দেয়। কাঁচা আম খেলে এ সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সহজ হয়। কাঁচা আমে থাকা কিছু উপকারী উপাদান ঘামাচি থেকে বাঁচতে সাহায্য করে।

তবে এটি অতিরিক্ত খেলে উপকারের বদলে ক্ষতি হতে পারে। কারণ যত উপকারীই হোক, কোনো খাবারই অতিরিক্ত খাওয়া ঠিক নয়।

সান নিউজ/এনজে

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

জায়েদের সাথে অভিনয় করতে চায় টয়া

বিনোদন ডেস্ক: বর্তমানে ছোটপর্দার...

ইসলামী ব্যাংকের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ইসলামী ব্যাংক ট্রেনিং অ্যান্ড রিসার্চ একা...

জয়ন্তী অনুষ্ঠান উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ আওয়ামী...

ভালুকায় কৃষি উদ্যোক্তা তৈরির কারিগর সাইদুল ইসলাম

ভালুকা (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা: ময়মনসিংহের ভালুকায় কৃষি কাজে শি...

লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূ হত্যার বিচারের দাবি

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে গৃহবধূ জোসনা আক্ত...

ইউনাইটেড হাসপাতাল অমানবিক আচরণ করেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকারের ভয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়...

ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠাল অস্ট্রেলিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসরের সুপার এইটে...

গ্যাস লিকেজ থেকে বিস্ফোরণ, দগ্ধ ২

জেলা প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে গ্যাসের লিকেজ থেকে বি...

ইসলামী ব্যাংকের অডিট কর্মশালা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : ইসলামী ব্যাংক ট্রেনিং অ্যান্ড রিসার্চ একা...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা