আন্তর্জাতিক
ক্ষুব্ধ ওয়াশিংটন

রাশিয়ার তেল ভারত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে

সান নিউজ ডেস্ক: রাশিয়া থেকে তেল কিনে এর উৎস গোপন করে, সেটি পরিশোধনের পর যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানোয় ভারতের ওপর ক্ষুব্ধ মার্কিন প্রশাসন। কারণ, এতে মস্কোর ওপর ওয়াশিংটনের দেওয়া নিষেধাজ্ঞার লঙ্ঘন হয়েছে। গত শনিবার (১৩ আগস্ট) ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক শীর্ষ কর্মকর্তা এ কথা জানিয়েছেন। রয়টার্স ও ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন: চকবাজার অগ্নিকাণ্ডে ৬ মরদেহ উদ্ধার

রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার ডেপুটি গভর্নর মাইকেল পাত্র ওড়িশার রাজধানী ভুবনেশ্বরে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বলেন, মার্কিন রাজস্ব বিভাগ ভারতকে বলেছে, একটি ভারতীয় জাহাজ গভীর সমুদ্রে একটি রুশ ট্যাংকার থেকে তেল নিয়ে গুজরাটের বন্দরে যায়। সেখানে তা পরিশোধন করে আবার সাগরে পাঠানো হয়।

তিনি বলেন, পরিশোধিত পণ্যটি আবার জাহাজে তুলে দেওয়া হয় এবং সেটি কোনো গন্তব্য ছাড়াই যাত্রা করে। মাঝসমুদ্রে জাহাজটি গন্তব্য জানতে পারে এবং সেইমতে নিউইয়র্কে পৌঁছায়। এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগপ্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

আরও পড়ুন: ইসরায়েলি হামলায় সিরিয়ার ৩ সৈন্য নিহত

ইউক্রেনে আগ্রাসনের কারণে রাশিয়ার তেল, গ্যাস, কয়লাসহ সবধরনের জ্বালানি আমদানি নিষিদ্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। বাকিদেরও রুশ জ্বালানি কেনা থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ জানিয়েছে তারা। তবে সেই অনুরোধে সাড়া দেয়নি পুরোনো মিত্র ভারত।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি আগে রাশিয়া থেকে খুব সামান্যই তেল আমদানি করতো। তবে ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর বিশাল মূল্যছাড় পেয়ে রুশ তেল আমদানি বাড়িয়ে দিয়েছে তারা। ভারত এক্ষেত্রে অভ্যন্তরীণ চাহিদার চাপের কথা বললেও তাদের এই সিদ্ধান্তে নাখোশ পশ্চিমা দেশগুলো।

গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরুর পরপরই রাশিয়ার অপরিশোধিত তেল, পরিশোধিত জ্বালানি, পাতন, কয়লা ও গ্যাস আমদানি নিষিদ্ধ করে যুক্তরাষ্ট্র।

মাইকেল পাত্র বলেছেন, তাকে জানানো হয়েছে, রুশ তেল প্রক্রিয়াজাত করে পাতন পদার্থে রূপান্তর করা হয়েছিল, যা একবার ব্যবহার্য প্লাস্টিক তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

তবে ভারতের কোন জাহাজে ওই তেল ওঠানো হয়েছিল, তা কোন পরিশোধনাগারে যায় কিংবা পাঠানো শিপমেন্টের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র কোনো ব্যবস্থা নিয়েছে কি না, এসব বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি ভারতীয় এ কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে নয়াদিল্লিতে মার্কিন দূতাবাসের পক্ষ থেকেও কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: আ.লীগে ছিলাম আছি থাকব

প্রসঙ্গত, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে পূর্ব ইউক্রেনের রুশপন্থী বিদ্রোহী ও সরকারি বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। ২১ ফেব্রুয়ারি বিদ্রোহীদের দুই রাষ্ট্র ‘দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিক’ ও ‘লুহানস্ক পিপলস রিপাবলিক’কে স্বীকৃতি দিয়ে শান্তি রক্ষায় ওই অঞ্চলে সেনাবাহিনী পাঠায় রাশিয়া।

পরে ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশপন্থী বিদ্রোহীদের সহায়তার লক্ষ্যে মস্কো স্থল, নৌ ও বিমান বাহিনীকে ইউক্রেনে পূর্ণমাত্রার অভিযানের নির্দেশ দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তারপর থেকে এখন পর্যন্ত সংঘাত অব্যাহত রয়েছে। যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী নিত্য পণ্যের দাম বেড়ে যায় যা এখন পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে।

সান নিউজ/এনকে

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

বিজয়ীর মকুট কার মাথায় উঠবে?

সান নিউজ ডেস্ক : এপি হাউজ প্রেজেন্ট মিস্টার এন্ড মিস সুপার ম...

মৃত্যুতে শীর্ষে জাপান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরও...

ডেঙ্গুতে আরও ৪ জনের মৃত্যু

সান নিউজ ডেস্ক: গত ২৪ ঘণ্টায় এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু জ্বরে আক্র...

করোনার চতুর্থ ডোজ দেওয়ার সুপারিশ

সান নিউজ ডেস্ক: এবার করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে টিকার চতু...

সমাবেশে খালেদা জিয়া যোগ দিলে ব্যবস্থা

সান নিউজ ডেস্ক: বিএনপি সমাবেশের নামে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নষ...

ব্রাজিলে করোনা আতঙ্ক 

সান নিউজ ডেস্ক: ব্রাজিলের প্রথম ম্যাচে সার্বিয়ার বিরুদ্ধে গো...

রুক্মিণী মৈত্র আহত

সান নিউজ ডেস্ক : জনপ্রিয় টলিউড...

বিদ্যুৎতের বড় অংশ আন্ডারগ্রাউন্ড হবে

সান নিউজ ডেস্ক: বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী...

কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে যুবকের কারাদণ্ড

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : ১৪ বছরের এক...

রাজশাহীতে পরিবহন ধর্মঘট চলছে

সান নিউজ ডেস্ক: রাজশাহীতে অনির্দি...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা