বিশেষ সংবাদ

বিশেষ সংবাদ

বাণিজ্য

ঈদের আগে অর্থনীতিতে সুবাতাস

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিশ্বব্যাপী বিদ্যমান করোনা পরিস্থিতিতে টালমাটাল অর্থনীতি। সারাবিশ্বের মতো দেশের অর্থনীতিতেও এর প্রভাব পড়েছে। তবে ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে দেশের অর্থনীতিতে লেগেছে সুবাতাস। রফতানি আয় আর রেমিট্যান্সের ডানায় ভর করে দোলা দিচ্ছে এই সুবাতাস।

জানা গেছে, সদ্য সমাপ্ত এপ্রিল মাসে দেশে রফতানি আয় বেড়েছে ২৬১ কোটি ডলার বা ৫০৩ শতাংশের বেশি। শুধু রফতানি আয় নয়, এপ্রিলে প্রবাসী বাংলাদেশিরা দেশে রেকর্ড সংখ্যক রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। আলোচ্য সময়ে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ২০৬ কোটি ৭০ লাখ মার্কিন ডলার (২ দশমিক ০৬ বিলিয়ন)। বাংলাদেশি মুদ্রায় (প্রতি ডলার ৮৫ টাকা ধ‌রে) যার পরিমাণ ১৭ হাজার ৫৬৯ কোটি টাকা। যা আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ৯০ শতাংশ বেশি। গত বছর এপ্রিলে রেমিট্যান্স এসেছিল ১০৯ কোটি ডলার।

বিষয়টিকে বেশ ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, বিধিনিষেধের সময় রফতানি আয় ও রেমিট্যান্সের যে খবর শোনা যাচ্ছে তা বেশ প্রেরণাদায়ক।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, চলতি অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে (জুলাই-এপ্রিল) দেশে রেমিট্যান্স এসেছে দুই হাজার ৬৭ কোটি (২০ বিলিয়ন) ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় এক লাখ ৭৫ হাজার ৭১২ কোটি টাকা)। এর আগে কোনো অর্থবছরের দশ মাসে এত পরিমাণ রেমিট্যান্স আসেনি বাংলাদেশে। গত ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে রেমিট্যান্স এসেছিল ১ হাজার ৪৮৬ কোটি ৮০ লাখ ডলার। চলতি অর্থবছরে ১০ মাসে রেমিট্যান্সে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৩৯ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য বলছে, ২০১৯-২০ অর্থবছরে ১ হাজার ৮২০ কোটি ডলার বা ১৮ দশমিক ২ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। অর্থবছর হিসাবে যা বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স আহরণ। তারও আগে, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স আহরণের রেকর্ড হয়। ওই সময় ১ হাজার ৬৪২ কোটি ডলার রেমিট্যান্স আসে দেশে।

এদিকে, চলমান বিধিনিষেধের মধ্যেও পণ্য রফতানিতে নতুন মাইলফলক স্পর্শ করে অর্থনীতিতে নতুন পালক যোগ করতে সক্ষম হয়েছে খান সংশ্লিষ্টরা।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) প্রকাশিত সর্বশেষ পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে, গত বছর দেশ দুই মাসের বেশি সময় লকডাউনে ছিলো। তখন পণ্য রফতানি প্রায় বন্ধ ছিল। ২০২০ সালের এপ্রিলে রফতানি খাত বড় ধরনের হোঁচট খায়। রফতানি নেমে যায় মাত্র ৫২ কোটি ডলারে। এ বছর এসে সেই বিপর্যয় কেটেছে। চলতি বছরের এপ্রিলে ৩১৩ কোটি ডলারের পণ্য রফতানি হয়। যা গত বছরের এপ্রিলের চেয়ে ৫০২ দশমিক ৭৫ শতাংশ বেশি।

সার্বিকভাবে চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রথম ১০ মাসে (জুলাই-এপ্রিল) তিন হাজার ২০৭ কোটি ডলারের পণ্য রফতানি হয়। যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে আট দশমিক ৭৫ শতাংশ বেশি।

চলতি বছরের প্রথম ১০ মাসে দুই হাজার ৬০০ কোটি ডলারের পোশাক রফতানি হয়েছে। এই আয় গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ছয় দশমিক ২৪ শতাংশ বেশি।

ইপিবির প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০-২০২১ অর্থবছরের ৯ মাসে (জুলাই-মার্চ) দুই দশমিক ৫৫ শতাংশ কমেছিল তৈরি পোশাক খাতের রফতানি। অন্যদিকে হিমায়িত মাছসহ সবধরনের হিমায়িত খাদ্যের রফতানি কমে ৯ শতাংশের মতো। চামড়া ও চামড়াজাত পণ্যের ছয় শতাংশের বেশি রফতানি কমেছে। ফার্নিচারের রফতানি কমেছে ১৩ শতাংশ। আর সবচেয়ে বেশি রফতানি কমেছে জাহাজ শিল্পে। এই খাতে রফতানি কমেছে ৯৮ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

অন্যদিকে, চলতি বছরের প্রথম ১০ মাসে ১০৩ কোটি ডলারের পাট ও পাটজাত পণ্য রফতানি হয়েছে। এই আয় গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৩০ দশমিক ৮৮ শতাংশ বেশি। এছাড়া ৯৫ কোটি ডলারের হোম টেক্সটাইল রফতানি হয়েছে। এক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধি ৫৪ শতাংশের বেশি।

ইপিবির তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জুলাই-এপ্রিল সময়ে ৭৬ কোটি ডলারের চামড়া ও চামড়া পণ্য, ৪৩ কোটি ডলারের প্রকৌশল পণ্য, ৩৯ কোটি ডলারের হিমায়িত খাদ্য রফতানি হয়েছে। এর মধ্যে চামড়া ও চামড়া পণ্যে সাড়ে আট শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

অবশ্য চলতি বছরের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে আরও ৮৯৩ কোটি ডলার প্রয়োজন। মে ও জুন মাসে এই পরিমাণ রফতানি অসম্ভব বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিষয়টি নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির অধ্যাপক আবু আহমেদ সাননিউজকে বলেন, রফতানি আয় ও রেমিট্যান্সের ঊর্দ্ধমুখি ধারা দেশের অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

তবে অনেকেই মনে করছেন, এই ধারা স্থায়ী নাও হতে পারে। কারণ হিসেবে তারা জানান, ঈদের আগে প্রবাসীরা দেশে বেশি অর্থ পাঠানোর চেষ্টা করেন। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। এ জন্য রেমিট্যান্স বেড়েছে।

সাননিউজ/আরএম/আরএস

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

বিপণিকেন্দ্রে 'ঠাঁই নেই ঠাঁই নেই' অবস্থা

রাসেল মাহমুদ: আসন্ন ঈদ-উল-ফিতরকে সামনে রেখে চলমান কঠোর বিধিন...

বজ্রপাতে প্রাণ গেল কৃষকের

মাসুম লুমেন, গাইবান্ধা : গাইবান্ধার ফুলছড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট...

শিমুলিয়ায় মাঝিসহ ৬ ট্রলার আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি, মুন্সীগঞ্জ : মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া-বাংলাবা...

করোনার ভারতীয় ধরন উদ্বেগজনক : ডব্লিউএইচও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনার ভারতীয়...

দেশে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল ১২ হাজার

সাননিউজ ডেস্ক: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায়...

অধিবেশন শুরু ২ জুন, বাজেট উপস্থাপন ৩ জুন

নিজস্ব প্রতিনিধি: জাতীয় সংসদের বা...

‘আওয়ামীলীগই দুর্যোগে মানুষের পাশে থাকে’

নিজস্ব প্রতিনিধি, শরীয়তপুর: পানি...

বেশি রানের জন্য আসছে বাঁশের ব্যাট!

স্পোর্টস ডেস্ক: ব্যাটারদের &lsquo...

মালিঙ্গা বিশ্বকাপেই ফিরছেন!

স্পোর্টস ডেস্ক: ৩৭ পেরিয়ে গেছে বয়...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা