টেকলাইফ

শিশুদের ইন্টারনেট নিরাপত্তায় অবশ্যম্ভাবী ‘প্যারেন্টাল কন্ট্রোল গাইডেন্স’

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ইন্টারনেটের কারণে এই পৃথিবী এখন হাতের মুঠোয়। চাইলেই যে কেউ নেট থেকে তার প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন। এমনকি প্রতিদিনের কাজও সারতে পারেন। ঘরে বসে নিজের ব্যাক্তিগত ডিজিটাল ডিভাইস, কম্পিউটার বা এনড্রোয়েড ফোন ব্যবহার করে মুহুর্তেই ঘুরে আসতে পারেন ভার্চুয়াল জগৎ থেকে।

এই ইন্টারনেট যেমন আমাদের জন্য আশীর্বাদ তেমনি শঙ্কাও জাগায়। সভ্য জগতে অসভ্যদের হাতছানি সব সময়ই থাকে। যাদের বিরৃপ প্রভাবের অন‍্যতম শিকার কোমলমতি শিশুরা। কারণ, তারাই বুঝে বা না জেনে বিভিন্ন সাইটে ঢু-মারে। এমনকি একসময় বিভিন্ন আপত্তিকর বা অনুপযুক্ত বিষয়েও আসক্ত হয়ে পড়ে তারা। নেটে কোনো ফিল্টারিং বা মনিটরের ব্যবস্থা না থাকায় এর প্রভাবে অনেক সময় মৃত্যুর মতো ঘটনাও ঘটে। অভিভাবকদের অজানার কারণেই বিপদের মুখে পড়ছে এইসব আগামী প্রজন্ম।

তাই ইন্টারনেট দুনিয়ায় শিশুদের নিরাপত্তার জন্য ‘প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সিস্টেম’ চালু হয়েছে। এটি হলো সেই প্রযুক্তি যা শিশুদের জন্য আপত্তিকর বা অনুপযুক্ত ওয়েবসাইট ব্লক বা ওয়েবসাইটের কনটেন্ট ফিল্টার কিভাবে করতে হয় তার ব্যবস্থা করে।

গত বছর দেশের একটি আইএসপি প্রতিষ্ঠান বিডিকম নিজ উদ্যোগে ‘নিরাপদ ইন্টারনেট’ নামে প্যারেন্টাল কন্ট্রোল প্রযুক্তি চালু করে। যা যথেষ্ট সাড়া পায়। এরই মধ্যে আম্বার আইটি, অগ্নি সিস্টেমস, অপটিম্যাক্স কমিউনিকেশন লিমিটেড সহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান এই সেবা চালু করেছে।

সরকার প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সিস্টেম মেনে চলার নির্দেশনা দিলেও এখনও তা সর্বস্তরে চালু হয়নি। দেশে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে কয়েকটি এই সেবা চালু করলেও মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো এখনও পিছিয়ে আছে।

তবে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলছেন, শিগগিরই মোবাইল অপারেটরগুলো পরিপূর্ণরূপে এই নির্দেশনা বাস্তবায়ন করবে। এই নির্দেশনা বাস্তবায়ন না করলে অপারেটরগুলোকে বাধ্য করা হবে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কোনও ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ও মোবাইল অপারেটররা খরচ বাড়বে বলে স্বেচ্ছায় এটা চালু করতে চায় না। মূলত সরকারের নির্দেশনার পর আইএসপিগুলো প্যারেন্টাল কন্ট্রোল চালুর উদ্যোগ নিয়েছে। অভিভাবকরা চাইলে আইএসপিগুলো প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সেবা দিচ্ছে। কয়েকটি প্রতিষ্ঠান নিজেরাই এর প্যাকেজ অফার করছে।

তবে এ ক্ষেত্রে বাবা-মায়েদের (অভিভাবক) এগিয়ে আসতে হবে। মূলত তাদের সচেতনতার অভাবেই প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সেবাটি সার্বিক জনপ্রিয়তা পাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন ইন্টারনেট সেবাদানকারীরা। প্রচার-প্রচারণার অভাবকেও দুষছেন তাদের অনেকে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘আমি যত বেশি ডিজিটাল হচ্ছি, আমার তত বেশি ডিজিটাল নিরাপত্তার সংকট তৈরি হচ্ছে। এই নিরাপত্তার হুমকিটা আসলে বহুমাত্রিক। আমি এতদিন বলে এসেছি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কথা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমই শুধু নিরাপত্তা ঝুঁকি নয়, আমার চারপাশের সবকিছু যেমন মোবাইল ফাইনান্সিয়াল সার্ভিসে যখন আমি কাজ করছি তখন এটাও ঝুঁকির মধ্যে পড়ে, পেমেন্ট সিস্টেমও ঝুঁকির মধ্যে পড়ে। ব্যাংকের টাকাও ঝুঁকির মধ্যে পড়ে। এমনকি ওয়েবসাইটও ঝুঁকির মধ্যে পড়ে। এই যে সামগ্রিকভাবে ঝুঁকিটা বাড়ছে, এই ঝুঁকিটা কমানোর অন্যতম উপায় হচ্ছে সচেতনতা। এই সচেতনতার জায়গাটাকে, বিশেষ করে নতুন প্রজন্মের জন্য আমার এই প্যারেন্টাল গাইডেন্স।’

শিশুদের নিয়ন্ত্রীত ইন্টারনেট ব্যবহারে বাবা মায়েদের মনিটরের প্রয়োজন রয়েছে বলে মন্ত্রী মনে করেন।

তিনি বলেন, ‘প্যারেন্টাল কন্ট্রোল গাইডেন্স দেওয়ার উদ্দেশ্যই হচ্ছে অভিভাবকরা যেন সন্তানদের তাদের মতো করে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। আমি নিয়ন্ত্রণের কথা বলছি এ কারণে যে, নিয়ন্ত্রণটা আমার উদ্দেশ্য নয়, বিষয় হলো মনিটর করা। অল্প বয়সের ছেলেমেয়েদের বাবা-মায়েরা এটা ঠিক করে দেয় কার সঙ্গে বন্ধুত্ব করা যাবে, কার সঙ্গে নয়। কারণ বন্ধুর প্রভাব তার জীবনে এসে পড়ে। এই বাবা মায়েরা যাতে তাদের সন্তানকে মনিটর করতে পারে এটা সেজন্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘আপনার হাতে যদি একটা ডিজিটাল হাতিয়ার থাকে তাহলে আপনি আপনার সন্তানকে সঠিক পথের নির্দেশনা দিতে পারবেন। আমি এজন্যই নিয়ন্ত্রণের কথা বলেছি। ফলে ২৪ ঘণ্টা ইন্টারনেট খোলা রাখলেও কোনও সমস্যা নেই।’

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘মোবাইল অপারেটররা মনে হয় এটা এখনও শুরু করেনি। তবে আমি যখন প্যারেন্টাল কন্ট্রোল গাইডেন্স অর্ডার দিয়েছি তখন আমি সবার জন্যই দিয়েছি। আমরা প্রথম স্তর বলে ওইসব জায়গায় এখনও কড়াকড়ি আরোপ করিনি। একটা সার্টেন স্টেজে গিয়ে আমরা কড়াকড়ি আরোপ করবো। আইএসপিগুলোর লাইসেন্স ইস্যুর শর্ত হলো প্যারেন্টাল কন্ট্রোল গাইডেন্স চালু করা।

এ বিষয়ে ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবির সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক বলেন, আমাদের সদস্যরা (আইএসপিএবির সদস্য) প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সেবাদানের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে। অভিভাবকরা চাইলেই তারা সেবা দিতে পারবে। অনেকে সেবা দিচ্ছেও। তবে গ্রাহকদের কাছ থেকে অনুরোধ আসতে হবে। অনুরোধ পেলেই আইএসপিগুলো এই সেবা দেবে। ইউজার লেভেল থেকেও তারা অনুরোধ কম পাচ্ছেন বলে জানান।

বিডিকম অনলাইন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম গোলাম ফারুক আলমগীর বলেন, আমরা এক বছর আগেই এই সেবাটা দিতে শুরু করেছি। সাড়া মোটামুটি। এই সেবা দিতে আমাদের ভর্তুকি দিতে হচ্ছে। তারপরও আমরা দিচ্ছি। আমরা এখন প্রমোশনাল অফারে প্যারেন্টাল কন্ট্রোল রাউটার ফ্রি দিচ্ছি। আমাদের সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই এটা দিচ্ছি। কারণ আমরা ইথিক্যাল বিজনেস পলিসি মেনে চলি।

তিনি জানান, তার প্রতিষ্ঠান ৫৩টি ক্যাটাগরিতে প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সেবা দিচ্ছে। যদিও তারা এটাকে বলছেন নিরাপদ ইন্টারনেট সেবা।

গোলাম ফারুক বলেন, প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সেবায় যে ৫৩টি ক্যাটাগরি বেছে নেওয়া হয়েছে তাতে করে আমাদের ইন্টারনেট সেবা সম্পূর্ণ নিরাপদ। শিশুদের হাতে ইন্টারনেট তুলে দিয়ে বাবা-মায়েরা নিরাপদে থাকতে পারবেন। কোনও অ্যাডাল্ট (পর্নো সাইট) কনটেন্ট, জুয়ার সাইট, সংহিস কোনও দৃশ্য, ধর্মীয় উগ্রবাদ ইত্যাদির লিংক, তথ্য, ভিডিও চিত্র আসবে না। সোজা কথা, যেকোনও অপ্রত্যাশিত এবং অপ্রয়োজনীয় কনটেন্ট স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফিল্টার হয়ে যাবে। ইন্টারনেট সম্পূর্ণ আপনার নিজস্ব নিয়ন্ত্রণে থাকছে।

প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সুবিধা নিয়ে তিনি আরো বলেন, কনটেন্ট ফিল্টার ও শিডিউলিং এই দু’ভাবে আমরা নিরপাদ ইন্টারনেট দিচ্ছি। এছাড়া আমরা বাড়ির বড়দের জন্য একটা এসএসআইডি এবং পাসওয়ার্ড দিচ্ছি যেটা ওপেন। সবকিছু ব্রাউজ করা যাবে। আর শিশুদের জন্য দিচ্ছি আরেকটি এসএসআইডি। সেটা দিয়ে শিশুরা তাদের উপযোগী সবই দেখতে পাবে। আর পূর্বপরিকল্পনা বা শিডিউলিং করে ইন্টারনেট সংযোগ স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ করা যাবে।

ধরা যাক, দিনের বিভিন্ন সময়ে গৃহ শিক্ষক, আরবি শিক্ষক বা গানের শিক্ষক আসেন। এছাড়া বাড়ির সন্তানটির পড়ার জন্য সময়ও বরাদ্দ রয়েছে। আগে থেকে সেই সময় অনুযায়ী নির্দেশনা দেওয়া থাকলে স্বয়ংক্রিভাবে সেই সময়ে ইন্টারনেট সংযোগ শিশুদের জন্য বিচ্ছিন্ন থাকবে। চাইলেও ওই সময় ইন্টারনেটে ব্যবহার করা যাবে না।

তবে মোবাইল অপারেটরগুলো প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সেবাদানে পিছিয়ে আছে। মোবাইল অপারেটর রবি কিছুদিন আগে এই সেবা চালু করলেও এখন তাদের সেবাটি বন্ধ রয়েছে। অন্য অপারেটরগুলো এই ব্যাপারে এখনো উদ্যোগ নেয়নি বলে জানা গেছে।

মোবাইল অপারেটরগুলোর সংগঠন অ্যামটবের মহাসচিব ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) এস এম ফরহাদ বলেন, নিরাপদ ইন্টারনেট ব্যবহারের নিশ্চয়তায় অপেরাটররা সার্বক্ষণিকভাবে বিটিআরসির সঙ্গে কাজ করছে। এরই ধারাবাহিকতায় অপারেটররা ইতোমধ্যেই বিটিআরসির নির্দেশনা অনুযায়ী বেশকিছু সাইট এবং কনটেন্ট ব্লক করেছে। এছাড়াও ইন্টারনেটে প্যারেন্টাল কন্ট্রোল সংক্রান্ত যে নির্দেশনা বিটিআরসি দিয়েছিল তা কিভাবে বাস্তবায়ন করা হবে তা নিয়ে অস্পষ্টতা থাকায় অপারেটররা বিটিআরসির সঙ্গে পরামর্শের আবেদন করেছে। বিষয়টি পরিষ্কার হওয়ার পরে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সান নিউজ/সালি

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

ঈদের পরদিনও বাস ভাড়া দ্বিগুণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঈদের পরদিনও রাজধানী ছাড়ছেন মানুষ। তবে তা ঈ...

নববর্ষের শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: পহেলা বৈশাখকে স...

আগামীকাল চৈত্র সংক্রান্তি 

সান নিউজ ডেস্ক: আগামীকাল চৈত্র সং...

পাহাড়ে ৩ দিনব্যাপী বৈসাবি উৎসব শুরু

জেলা প্রতিনিধি: রাঙ্গামাটিতে কাপ্তাই হ্রদে ফুল ভাসানোর মধ্য...

পহেলা বৈশাখের আগে ইলিশের দাম চড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ ঈদের দ্বিতীয়...

দুই মেম্বার সমর্থকদের সংঘর্ষ, আহত ১৫

জেলা প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জমিতে সেচের পানি দেওয়াকে কেন...

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ, নিহত ৩

জেলা প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ে দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে ৩ জন ন...

টিকটক বানাতে গিয়ে কিশোরের মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামে নদীতে টিকটকের ভিডিও বানাতে গিয়ে প...

জলদস্যুদের চেয়েও ভয়ংকর বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক : সোমালিয়ার জলদস্যুদের চেয়েও অনেক বেশি ভয়ংক...

নববর্ষে বন্ধ থাকবে যেসব সড়ক

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা