ফাইল ফটো
আন্তর্জাতিক

ফিলিস্তিনি প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ফিলিস্তিনের ক্ষমতাসীন সরকারের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শাতায়েহ পদত্যাগ করেছেন। তার পদত্যাগের মধ্যে দিয়ে কার্যত পুরো মন্ত্রিসভার পতন ঘটল।

আরও পড়ুন: এমএলএসহ ৩ জনকে গুলি করে হত্যা

সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি। পরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি নিজেই এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মোহাম্মদ শাতায়েহ বলেন, আমি প্রেসিডেন্ট বরাবর পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি। গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর আগ্রাসন ও পশ্চিম তীর-জেরুজালেমে সহিংসতা বৃদ্ধির প্রতিবাদে আমি এ পদক্ষেপ নিয়েছি।

গাজা ভূখণ্ডের পরিস্থিতি এখন আর আগের মতো নেই। নতুন একটি বাস্তবতা সেখানে সৃষ্টি হয়েছে। সেই বাস্তবতায় ফিলিস্তিনের অখণ্ডতা ও ঐক্য ধরে রখাতে হলে নতুন সরকার ও নতুন রাজনীতি প্রয়োজন।

আরও পড়ুন: বুরকিনা ফাসোতে হামলা, নিহত ১৫

তিনি আরও বলেন, আমাদের সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ পরিবর্তিত অবস্থার সাথে খাপ খাইয়ে নেয়া এবং এমন একটি সরকারকে ক্ষমতায় বসানো, যে সরকার পুরো ফিলিস্তিনের ঐক্য দৃঢ় করতে পারবে। আমার পদত্যাগের মূল কারণ এটাই।

উল্লেখ্য, পশ্চিম তীর, গাজা ও পূর্ব জেরুজালেম- ৩ ভূখণ্ডের সমন্বয়ে গঠিত ফিলিস্তিন। এই ৩ অঞ্চলই একসময় ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী রাজনৈতিক দল ফাতাহ এবং অন্যান্য গোষ্ঠীগুলোর জোট প্যালেস্টাইন অথরিটির (পিএ) অধীনে ছিল।

২০০৫ সালে গাজার নিয়ন্ত্রণ চলে যায় স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের হাতে। এরপর থেকে ফিলিস্তিনে ২ টি সরকার ক্রিয়াশীল- পিএ এবং হামাস। পশ্চিম তীর ও জেরুজালেম এখনও পিএ’র অধীনে রয়েছে।

আরও পড়ুন: নালিশ করাই বিএনপির রাজনীতি

প্রসঙ্গত, ১৯৫৮ সালে পশ্চিম তীরের নাবলুস জেলার তেল শহরে জন্ম নেয়া শাতায়েহ ব্যবসায় প্রশাসন ও অর্থনীতে উচ্চতর ডিগ্রিধারী। ‍যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব সাসেক্স থেকে ১৯৮১ সালে অর্থনৈতিক উন্নয়নের ওপর উচ্চতর ডিগ্রি নেন তিনি।

পশ্চিম তীরের বিরজেইত বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার মধ্যে দিয়ে তার কর্মজীবন শুরু। ১৯৮৯ -১৯৯৩ সাল পর্যন্ত তিনি সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক ছিলেন।

১৯৯৫-১৯৯৮ সাল পর্যন্ত ফিলিস্তিনের নির্বাচন কমিশনের সেক্রেটারি জেনারেল ছিলেন শাতায়েহ। ২০০৫-২০১০ সাল পর্যন্ত ফিলিস্তিনের সরকারের কর্মসংস্থা ও আবাসন বিষয়ক মন্ত্রী ছিলেন। মোহাম্মদ শাতায়েহ ২০১৯ সালে দেশটির প্রধানমন্ত্রী হন। সূত্র: আল জাজিরা

সান নিউজ/এনজে

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

ভোলায় অনুষ্ঠিত হলো প্রাণী প্রদর্শনী মেলা

ভোলা প্রতিনিধি: ‘প্রাণিসম্পদে ভরবো দেশ, গড়বো স্মার্ট ব...

সম্মিলনী বিদ্যালয়ের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ

কামরুল সিকদার, বোয়ালমারী (ফরিদপুর) : ফরিদপুর জেলার সদর ইউনিয়...

বাংলাদেশ স্কাউট দিবস ২০২৪ পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : আজ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউটে অনুষ্...

ভাসানচরে এক রোহিঙ্গাকে গলা কেটে হত্যা

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর হাতিয়ার ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যা...

হিট স্ট্রোক প্রতিরোধে করণীয়

লাইফস্টাইল ডেস্ক : দেশে তাপপ্রবাহ বাড়ছে। আর এই গরমে সবচেয়ে ব...

হাতিয়াতে ২টন কফি পাউডারসহ চালক-হেলপার আটক 

জেলা প্রতিনিধি: নোয়াখালী জেলার হা...

আগামীকাল গ্যাস বন্ধ যেসব এলাকায়

নিজস্ব প্রতিবেদক: গ্যাস পাইপলাইনের জরুরি কাজের জন্য শনিবার (...

শিব নারায়ণ দাস আর বেঁচে নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশের জাতী...

মন্ত্রীর আত্মীয় বলে ছাড় পাবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডাক টেলিযোগাযো...

গণপিটুনিতে ২ ভাই নিহত

জেলা প্রতিনিধি: ফরিদপুরে গণপিটুনিতে আশরাফুল খান (১৭) ও আশাদু...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা