বিশেষ সংবাদ

বিশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক

চুল ফেলতে বাধ্য করা হচ্ছে করোনায় সেবা দেয়া নার্সদের

সান নিউজ ডেস্ক:

উহানে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের স্বাস্থ্যসেবার কাজ করা নার্সদের মাথার চুল ফেলে দেয়া হচ্ছে। অভিযোগ উঠেছে, জোরপূর্বক তাদের চুল ফেলতে বাধ্য করছে উহানের একটি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যায়, প্রায় এক ডজন নার্সের চুল কেটে ফেলা হচ্ছে। এসময় কয়েকজনের চোখে পানিও দেখা যায়। এ থেকেই শুরু হয় বিতর্ক।

তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভিডিওতে যেসব নারীকর্মীদের দেখা গেছে তারা স্বেচ্ছায় উহানে গিয়ে চিকিৎসা দিতে চেয়েছেন এবং তাদের চুল কাটার বিষয়টিও জোরপূর্বক নয়।

ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মধ্যে এ নিয়ে পাল্টাপাল্টি মন্তব্য করতে দেখা গেছে। অনেকেই দাবি করছেন, এ কাজ জোরপূর্বক করা হচ্ছে। আবার অনেকেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবিকে মেনে নিয়েছেন।

এরইমধ্যে করোনার চিকিৎসা দিতে গিয়ে প্রায় ২ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। করোনার প্রথম সনাক্তকারী চিকিৎসক সহ মারা গেছেন ৬ জন ডাক্তার, আর একজন হাসপাতাল পরিচালক। এরপর আর ঝুঁকি নেননি চিকিৎসক ও নার্সরা। সংক্রমণের সমস্ত পথ বন্ধ করতে চুল কেটে ফেলেছেন নারী স্বাস্থ্যকর্মীরা।

এতে দুটি উপকার হবে বলে মনে করছেন তারা। প্রথমত, চুলের মাধ্যমে প্রাণঘাতী জীবাণুর সংক্রমণ এড়ানো যাবে। দ্বিতীয়ত, হাসপাতালে প্রবেশের পর যে সুরক্ষাবর্ম তাদের পরতে হয়, তা বদল করাও অনেক সহজসাধ্য এবং কম সময়ের মধ্যে হবে।

শনিবার স্থানীয় পত্রিকা গানসু ডেইলি প্রথম এই ফুটেজটি প্রকাশ করে। তারা জানায়, চুল কাটার পর ওই কর্মীদের লানঝো শহরে পাঠানো হয়। সেখানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা প্রদান করবেন তারা। অনেকেই মন্তব্য করেছেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ইচ্ছাকৃতভাবে এ কাজ করেছে যাতে তারা আলোচনায় আসতে পারে।

অনেকে আবার এর প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। বলছেন, তারা এমনিতেই মাথা আটকে কাজ করেন। তাছাড়া তাদের চুল এমনিতেও খুব বেশি বড় ছিল না। তারপরেও এমন নিষ্ঠুরভাবে তাদের চুল কেটে ফেলা হলো কেনো সেটি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন তারা।

এদিকে, দ্য কোয়ার্টজ জানিয়েছে, মূলত কভিড-১৯ মোকাবিলায় চীনা নার্সদের সাহসিকতা, ত্যাগের বিষয়টি ফুটিয়ে তুলতে ওই ভিডিও প্রকাশ করেছিল গানসু ডেইলি। কিন্তু এতে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে নেটিজেনদের মধ্যে। অনেকে বলেছেন, এতে সাহসিকতার চেয়ে অপমান বেশি ফুটে ওঠেছে।

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

শিল্পকলা থেকে মূল্যবান চিত্রকর্ম সরানোর অভিযোগ

হাসনাত শাহীন : প্রধানমন্ত্রী শেখ...

‘সব মানুষকে বীমার আওতায় আনা দরকার’

নিজস্ব প্রতিবেদক : সব শ্রেণি-পেশা...

শ্রীমঙ্গলে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, জনজীবন বিপর্যস্ত

নিজস্ব প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার : চায়ের রাজধানী খ্যাত পর্যটন শহ...

আছে বেড, নেই বালিশ ও কম্বল

নিজস্ব প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্ম...

অপহরণ মামলায় ৮ জনের ১৫ বছর করে কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীতে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবি করার ঘট...

কিশোরগঞ্জে হত্যা মামলায় নারীসহ ২ জনের মৃত্যুদণ্ড

নিজস্ব প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ : কিশ...

আসামি ধরতে গিয়ে হামলায় ৫ পুলিশ আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি, পিরোজপুর : পিরো...

নারী নির্যাতনের ঘটনায় পাচারের মামলা: হাইকোর্টে তলব

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেখালেন চাকরির...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা