ছবি: সংগৃহীত
সারাদেশ

চট্টগ্রামে শিলাবৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

জেলা প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে দেড় ঘণ্টার ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ঘরবাড়ি ও ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া খুঁটি ভেঙে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। ঝড়ের সময় বজ্রপাতে ৩টি গরু মারা যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

আরও পড়ুন: দাম বাড়ল সয়াবিন তেলের

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) ভোরে ঝড়, বজ্রপাত ও শিলাবৃষ্টি হয়।

জানা গেছে, উপজেলার ১৬ ইউনিয়ন ও ২ পৌরসভায় ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে অনেক ঘরের টিন উড়ে গেছে। জোরারগঞ্জ ইউনিয়নে বেশ কয়েকটি স্থানে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। এতে গরমের মধ্য চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন মানুষ।

রহমতাবাদ এলাকার বাসিন্দা নুরুল হুদা বলেন, ভোরে বজ্রপাতে তার এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য মফিজুর রহমান, রেজাউল করিম ও আবুল হাসেমের ৩টি গরু বজ্রপাতে মারা যায়। গরুগুলো বাড়ির কাছে চরে বাঁধা ছিল। সকালে গিয়ে দেখতে পান গরুগুলো মাটিতে পড়ে আছে। গরুগুলোর আনুমানিক মূল্য ৩ লাখ টাকা।

আরও পড়ুন: আ’লীগ বিরোধীদল দমনে বিশ্বাস করে না

পশ্চিম দুর্গাপুর এলাকার বাসিন্দা শাহ আলম জানান, বেশ কয়েকদিন তীব্র গরম ও লোড শেডিংয়ের কারণে জনজীবন অতিষ্ঠ। এ অবস্থায় আজ ভোরে ঝড় বাতাসে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে যাওয়ায় প্রায় ১৫ ঘণ্টা বিদ্যুৎহীন অবস্থায় রয়েছি। অনেকবার বিদ্যুৎ অফিসে ফোন করলেও এখনো লোকজন আসেনি।

তিনি আরও জানান, শিলাবৃষ্টিতে অনেক গাছের আম ঝরে পড়েছে। এছাড়া ক্ষেতের মিষ্টিকুমড়া ও টমেটোসহ বিভিন্ন ফসলের ক্ষতি হয়েছে। শিলাবৃষ্টিতে ঘরের চালের টিন ফুটো হয়ে গেছে অনেক বাড়িতে।

ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, আজ ভোরে থেমে থেমে বড় আকারের শিলা পড়েছে। এসব শিলার কোনোটির ওজন ২০০-২৫০ গ্রাম পর্যন্ত।

আরও পড়ুন: ভোলায় অনুষ্ঠিত হলো প্রাণী প্রদর্শনী মেলা

মঘাদিয়া ইউনিয়নের হাসিমনগর এলাকার কৃষক শহীদুল ইসলাম জানান, ক্ষেতে তোলার উপযোগী ২০ মণের মতো পাকা টমেটো ছিল। আজ শিলাবৃষ্টিতে বেশির ভাগ টমেটো নষ্ট হয়ে গেছে।

ওয়াহেদপুর এলাকার বাসিন্দা কাঠমিস্ত্রি লিটন চন্দ্র নাথ জানান, শিলা পড়ে অনেক বাড়িতে টিনের চালায় বড় বড় ফুটো তৈরি হয়েছে। ঘরের টিন বদলানোর কাজ করতে অনেক বাড়ি থেকে ডাক আসছে।

আরও পড়ুন: কেশবপুরে মুজিবনগর দিবস পালিত

মিরসরাই উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, শিলাবৃষ্টিতে বোরো ধান, গ্রীষ্মকালীন সবজি ও ডালের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ৯৫০ হেক্টর জমির বোরো ধান আক্রান্ত হয়েছে। ক্ষতি হয়েছে ৪৫ হেক্টর জমির ধান।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা প্রতাপ চন্দ্র রায় বলেন, শুধু বৃষ্টি হলে তেমন ক্ষতি হতো না। শিলা পড়ায় ক্ষতির পরিমাণ বেশি হয়েছে।

সেখানকার বিদ্যুৎ পরিস্থিতির বিষয়ে জানতে চট্টগ্রাম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৩ এর মিরসরাই জোনাল অফিসের ডিজিএম আদনান আহমদের মোবাইলে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

সান নিউজ/এনজে

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

প্রস্তুতি ম্যাচের সূচি প্রকাশ

স্পোর্টস ডেস্ক : আসন্ন আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল আস...

টিভিতে আজকের খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক: প্রতিদিনের মতো আজ শনিবার (১৮মে) বেশ কিছু খেল...

কর্মস্থলে না এসেও বেতন তোলেন শিক্ষক

আবু রাসেল সুমন, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

মুন্সীগঞ্জে ভাসমান মরদেহ উদ্ধার

মো. নাজির হোসেন, মুন্সীগঞ্জ : মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মধ্য কোটগাঁ...

মেঘনা নদীতে পাঙ্গাশ রক্ষায় অবৈধ চাই ধ্বংস 

ভোলা প্রতিনিধি: ভোলায় মেঘনা নদী থ...

ওএমএস বিতরণে গাফলতি হলে ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক: খাদ্যমন্ত্রী সা...

পটল কেন উপকারী?

লাইফস্টাইল ডেস্ক: পটল আমাদের দেশের পরিচিত একটি সবজি, যা খেতে...

মিডিয়া ট্রায়াল বন্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে

জেলা প্রতিনিধি: বিচারের আগে মিডিয...

হোয়াটসঅ্যাপে আসছে পরিবর্তন

টেকলাইফ ডেস্ক: জনপ্রিয় যোগাযোগ মা...

মঙ্গলবার ১৫৭ উপজেলায় সাধারণ ছুটি 

নিজস্ব প্রতিবেদক: ষষ্ঠ উপজেলা পরি...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা