বিশেষ সংবাদ

বিশেষ সংবাদ

আন্তর্জাতিক
করোনা আতঙ্ক

ওয়াইনের চেয়েও মূল্যবান টয়লেট পেপার; ভুতুরে নগরী সিঙ্গাপুর

সান নিউজ ডেস্ক:
করোনাভাইরাসের আতঙ্কে কাঁপছে পুরো বিশ্ব। অনেকে নিজের স্বাদ আহ্লাদ কিংবা অতি প্রয়োজনীয় জিনিসের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে প্রানঘাতী ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে সুরক্ষা উপকরণের। এশিয়ার অন্যতম দুই অর্থনৈতিক কেন্দ্র সিঙ্গাপুর ও হংকংয়ে এখন মন্টব্ল্যাংক কলম কিংবা চামড়ার ফলিওর চেয়ে উপহার হিসেবে সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে টয়লেট পেপার ও সার্জিক্যাল মাস্ক।

অঞ্চলজুড়ে যখন নভেল করোনাভাইরাসের আশঙ্কার বিস্তার ঘটছে, তখন হংকং ও সিঙ্গাপুরের ফার্মেসি ও সুপারমার্কেটগুলোয় টয়লেট পেপার, পেপার টাওয়েল ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং বিশেষ করে মাস্কের মজুদ ফুরিয়ে যাচ্ছে।

এর মাধ্যমে আর্থিক সেবা খাতের জন্য তাদের গ্রাহক তুষ্টি ও সম্পর্ক জোরদারের নতুন উপায় পাওয়া গেছে। সম্প্রতি গ্রাহকদের ফেস মাস্ক, ডিজিটাল থার্মোমিটার ও ডেটল অ্যান্টিসেপটিক উপহার দিয়ে ভাইরাল হয়েছে সিঙ্গাপুরভিত্তিক অনলাইন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আইজি গ্রুপ।

নভেল করোনাভাইরাস নিয়ে সিঙ্গাপুরের ঝুঁকিপূর্ণ মাত্রার (কমলা) সতর্কতা জারির পর ওই উপহারসামগ্রী বিতরণ শুরু করেছিল আইজি। স্থানীয় একটি ব্যবস্থাপক টিম অনেকটা মজা করে গ্রাহকদের এ উপহার চালু করলেও প্রতিষ্ঠানটি কেন্দ্রীয়ভাবে তা অনুসরণ শুরু করে। আইজি গ্রুপকে অনুসরণ করে গ্রাহকদের এমন উপহার সামগ্রী পাঠানো শুরু করে কয়েকটি ব্যাংক।

হংকংয়ে আর্থিক সেবাদাতা একটি প্রতিষ্ঠান পরিচালনার দায়িত্বে থাকা মার্কিন নাগরিক গত ১০ ফেব্রুয়ারি জোয়েল ওয়ার্নার অ্যামাজন থেকে ২১৬ প্যাকেট টয়লেট পেপার কেনেন। হংকংয়ের বাজার থেকে তার পরিবার কয়েকদিনের চেষ্টার পরও তা কিনতে ব্যর্থ হওয়ায় ২০০ ডলার অতিরিক্ত পরিবহন মাশুল দিয়ে এ টয়লেট পেপার কিনেছিলেন তিনি। নিজের পরিবারের জন্য অর্ধেক রেখে বাকি অর্ধেক বন্ধুবান্ধব ও সহকর্মীদের দিয়ে দেন তিনি। ওয়ার্নার মনে করেন টয়লেট পেপার এখন ওয়াইনের চেয়েও মূল্যবান উপহার সামগ্রীতে পরিণত হয়েছে।

এদিকে করোনাভাইরাস আতঙ্কে হঠাৎ থমকে গেছে পর্যটন, ব্যবসা ও চিকিৎসার জন্য বিদেশীদের কাছে অন্যতম আকর্ষণীয় স্থান সিঙ্গাপুরে। এশিয়ার বিস্ময় ক্ষুদে এই দ্বীপরাষ্ট্র কয়েকদিন আগেও অসংখ্য পর্যটকের পদচারণায় ছিল মুখরিত। কিন্তু শহরের পর্যটন এলাকাগুলো এখন জনশূন্য, রাস্তাঘাটও ফাঁকা। কোনো কোলাহল নেই ক্যাসিনোগুলোয়। সব মিলিয়ে ভুতুড়ে নগরীতে পরিণত হয়েছে বিশ্বের অন্যতম সেরা এ শহর।

পর্যটন খাতসংশ্লিষ্টরা বলছেন, এরইমধ্যে সিঙ্গাপুরের সব ট্যুরের বুকিং বাতিল করেছেন পর্যটকরা। এতে দেশটি যেমন ক্ষতির মুখে পড়েছে, তেমনি ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এয়ারলাইনস ও ট্যুর অপারেটর প্রতিষ্ঠানগুলো।

যাত্রী আগমন ও সেবা বিবেচনায় একাধিকবার বিশ্বে শীর্ষস্থান পেয়েছে সিঙ্গাপুরের চাঙ্গি বিমানবন্দর। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে এরই মধ্যে যাত্রী হারাতে শুরু করেছে বিমানবন্দরটি। সিঙ্গাপুর ট্যুরিজম বোর্ড বলছে, স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিদিন ১৮ থেকে ২০ হাজার যাত্রী কম আসছে, যা ভবিষ্যতে আরো কমতে পারে। পর্যটকের অভাবে সিঙ্গাপুরের বড় বড় হোটেলও অনেকটা ফাঁকা। আর ব্যবসায়িক প্রয়োজনে যারা এখনো সিঙ্গাপুর ভ্রমণ করছেন, তারাও হোটেল ও কাজের ক্ষেত্র ছাড়া খুব বেশি বের হচ্ছেন না।

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

আ.লীগ নেতার ওপর হামলার প্রতিবাদে হরতাল ও বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিনিধি, ভোলা : ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলা আওয়ামী লীগ স...

ফরিদপুরে আগুনে দেড় কোটি টাকার ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিনিধি, ফরিদপুর : ফরিদপুরের মধুখালী পৌর সদরের কেন্...

বেলকুচিতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, এলাকাবাসীর ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিনিধি, সিরাজগঞ্জ: জেলার বেলকুচিতে যমুনা নদীর শাখা...

হাজিরা দিলেন খালেদা জিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক : নাইকো দুর্নী...

প্রস্তুত হচ্ছেন সামান্থা আক্কিনেনি

বিনোদন ডেস্ক : ভারতীয় দক্ষিণী সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্...

ফেব্রুয়ারিতে ডিএসই হারালো ১৩ হাজার কোটি টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি ফেব্রুয়ার...

জাতীয় ভোটার দিবস আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক : আজ ২ মার্চ জ...

‘বিএনপির সমাবেশ ঠেকাতে বাস চলাচল বন্ধ’

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাজশাহী : রাজশা...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা