প্রতীকী ছবি
জাতীয়

অনুমোদন না হলে ইভিএম নয়

সান নিউজ ডেস্ক: আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারির মধ্যে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কেনার প্রকল্প প্রস্তাব অনুমোদন না পেলে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সর্বোচ্চ ১৫০ আসনে এ যন্ত্র ব্যবহার করা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. আলমগীর বলেছেন।

আরও পড়ুন: কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত

বুধবার (৯ নভেম্বর) রাজধানীর আগারগাঁও নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

নতুন দুই লাখ ইভিএম কিনতে ৮ হাজার ৭১১ কোটি টাকার ‘নির্বাচনী ব্যবস্থায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) ব্যবহার বৃদ্ধি এবং টেকসই ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক একটি প্রকল্প প্রস্তাব পরিকল্পনা কমিশনে পাঠিয়েছে ইসি। গতকাল মঙ্গলবার পরিকল্পনা কমিশন ওই প্রকল্প প্রস্তাবের ব্যয় যৌক্তিক করার পরামর্শ দেয়।

আরও পড়ুন: কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ স্থগিত

এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার বলেন, পরিকল্পনা কমিশন কী পর্যবেক্ষণ দিয়েছে- তা নির্বাচন কমিশন এখনো জানে না। এগুলো দেখার পর কমিশন বসে সিদ্ধান্ত নেবে। তিনি বলেন, প্রকল্প অর্থনৈতিক সক্ষমতার ওপর নির্ভর করে। পরিকল্পনা কমিশন বা অর্থ মন্ত্রণালয় কত টাকা দিতে পারবে তার ওপর এটি নির্ভর করে।

মো. আলমগীর বলেন , প্রকল্প অনুমোদনের পর কার্যাদেশ দেওয়া, এলসি খোলা, যন্ত্রাংশ দেশে আনা, মান পরীক্ষা করা, সংশ্লিষ্টদের প্রশিক্ষণ, ইভিএম ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত করা, মাঠে পাঠানো— এ কাজগুলো করতে হবে। ডিসেম্বরের শেষ থেকে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে প্রকল্প অনুমোদন না হলে নতুন ইভিএম জাতীয় নির্বাচনে ব্যবহার করা সম্ভব হবে না।

আরও পড়ুন: আইএমএফের ঋণ পেতে যাচ্ছি

তিনি বলেন, সারা বিশ্বে অর্থনৈতিক সংকট আছে। বাংলাদেশও তার বাইরে নয়। ইভিএমের যে ব্যয় তার অধিকাংশই বিদেশি মুদ্রায় পরিশোধ করতে হবে। যন্ত্রাংশ বিদেশ থেকে আমদানি করতে হবে। রিজার্ভের একটা সমস্যা থাকতে পারে, অর্থনৈতিক সমস্যা থাকতে পারে, সে হিসাবে পরিকল্পনা কমিশন কতটুকু পারবে সেসব দেখে ইসি সিদ্ধান্ত নেবে কী করা উচিত।

অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে এত বড় প্রকল্প প্রস্তাব করার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মো. আলমগীর বলেন, ইভিএমের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় অর্থনৈতিক পরিস্থিতি এমন ছিল না। তারা প্রস্তাব পাঠানোর পর বুঝতে পেরেছেন অর্থনৈতিক সংকটা আছে। অর্থনৈতিক সক্ষমতা কতটুকু আছে সেটা বলতে পারবে অর্থ মন্ত্রণালয়, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়। ইসি নিজেদের চাহিদার কথা বলেছে। মন্ত্রণালয় কতটুকু দিতে পারবে সেটা তাদের ব্যাপার।

সান নিউজ/এমআর

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

ট্রাক চাপায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে ডাম্প ট্রাক চাপায় মো. হাবি...

ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের ঘর তৈরি করে দেব

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ঘূর্ণিঝড়...

ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতি প্রস্তাব পাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জাতিসংঘের সিকিউরিটি কাউন্সিলে আমেরিকার প্...

টিভিতে আজকের খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক: প্রতিদিনের মতো আজ মঙ্গলবার (১১ জুন) বেশ কিছু...

নারায়ণগঞ্জে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

জেলা প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ জেলায় আশরাফ চৌধুরী সজীব (১৮) নামে...

চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে শিক্ষার্থী নিহত

নিনা আফরিন, পটুয়াখালী : পটুয়াখালীতে ব্যাটারি চালিত অটো রিক্স...

ফিল্ডিংয়ে ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চলতি আসরে সুপার এইটে...

পল্টনে বহুতল ভবনে আগুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর পল্টনে ফায়েনাজ টাওয়ারে আগুনের...

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে র‌্যাংকিং নিয়ে কাজের আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে বিশ্ব র‌্য...

আমাদের প্রধান শত্রু সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক : আমাদের প্রধান শত্রু এই দখলদার সরকার। সরকা...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা