বিজ্ঞান

বিষ্ফোরিত হতে যাচ্ছে উজ্জ্বল নক্ষত্র বেটেলজাস

বিজ্ঞান ডেস্ক:

পৃথিবী থেকে খালি চোখে দেখা যায় এমন এক উজ্জ্বল নক্ষত্রের নাম বেটেলজাস। তবে দিনে দিনে এ নক্ষত্রের উজ্জলতা কমে যাচ্ছে বলে শঙ্কায় পড়েছেন বিজ্ঞানীরা। তারা ধারণা করছেন, সময়ের চেয়ে অনেক আগেই এটি বিস্ফোরিত হয়ে সুপারনোভায় পরিণত হবে। বিজ্ঞানীরা মনে করতেন—এটি ধীরে ধীরে বিস্ফোরিত হবে। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বেটেলজাসের কিছু পরিবর্তন দেখে বিজ্ঞানীরা আশঙ্কা করছেন যে, এটি নির্দিষ্ট সময়ের অনেক আগেই বিস্ফোরিত হতে যাচ্ছে।

বেটেলজাসকে এরই মধ্যে ‘ধ্বংসের মুখে থাকা নক্ষত্র’ হিসেবে শ্রেণিবদ্ধ করা হয়েছে; যার বিস্ফোরণ এখন সময়ের ব্যাপারমাত্র। সূর্যের বয়স যেখানে সাড়ে চার বিলিয়ন বছর; সেখানে বেটেলজাসের বয়স মাত্র ৮০ লাখ থেকে এক কোটি বছর। কিন্তু এটি এর পারমাণবিক জ্বালানি অতি দ্রুত মাত্রায় ব্যয় করে ফেলছে। এটি হচ্ছে একটি লাল সুপার জায়ান্ট তারা, যার আয়ু প্রায় শেষের পথে কিন্তু এর আকার যথেষ্ট প্রসারিত হয়েছে। ২০১৭ সালে চিলিতে স্থাপিত আলমা পর্যবেক্ষণ টেলিস্কোপে সর্বোচ্চ রেজ্যুলেশন ব্যবহার করে বেটেলজাসের তোলা ছবি দেখে বিজ্ঞানীদের সেই ধারণা আরো প্রকট হয়েছে।

পৃথিবী থেকে ৭০০ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত বেটেলজাস। আর এর বিষ্ফোরনের সময় অতি দ্রুত বলা হলেও সেটি হতে পারে এক লাখ বছরের কাছাকাছি কোনো সময়।

নটিংহাম ট্রেন্ট ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক ড্যানিয়েল ব্রাউন বলেন, এর সম্পর্কে যা জানা যায় তা হচ্ছে এটির সুপারনোভায় পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর বর্তমান অবস্থা থেকে এটা বোঝা যায় যে, জ্যোতির্বিজ্ঞানের সময়ের হিসাবে এটি যে কোনো সময় ঘটতে পারে।

গত কয়েক মাসে জ্যোতির্বিদরা লক্ষ্য করেছেন, বেটেলজাস ধীরে ধীরে অনুজ্জ্বল তারায় পরিণত হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের ভিলানোভা ইউনিভার্সিটির গবেষকরা গত ডিসেম্বরে দাবি করেছেন, তারাটি ৫০ বছর ধরে পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে এই সময়ের মধ্যে সবচেয়ে অনুজ্জ্বল পর্যায়ে পৌঁছেছে। উল্লেখযোগ্য হারে উজ্জ্বলতা হারানো থেকে ধারণা করা হচ্ছে যে, এই রেড জায়ান্টটি ‘বিস্ফোরিত হতে যাচ্ছে।’

বিজ্ঞানীরা তাত্ত্বিকভাবে বলেছেন যে, এত বেশি মাত্রায় উজ্জ্বলতা হারানোর মানে হচ্ছে যে, বেটেলজাসের সময় ফুরিয়ে এসেছে। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যোতির্বিদ এবং বেটেলজাসের গবেষক সারাফিনা ন্যান্স বলেন, আয়ুষ্কাল শেষ হয়ে আসলে বিশালাকার নক্ষত্রও তাদের ব্যাপক হারে ভরশূন্য হয়ে পড়ে।

তাত্ত্বিকভাবে বলা যায়, সুপারনোভায় পরিণত হওয়ার আগে নক্ষত্রটি থেকে ছড়িয়ে পড়া ধুলা মৃতপ্রায় নক্ষত্রটিকে আবৃত করে এটিকে অন্ধকারাচ্ছন্ন করে ফেলতে পারে, যার কারণে এটি আমাদের দৃষ্টিসীমা থেকে হারিয়ে যেতে পারে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, আশার কথা বেটেলজাস সুপারনোভা পৃথিবীর জীববৈচিত্র্যে জন্য কোনো হুমকির কারণ হবে না।—বিবিসি।

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

ঘূর্ণিঝড়ে সাতক্ষীরায় ৭ লাখ গ্রাহক বিদ্যুৎবিহীন

মো. মাজহারুল ইসলাম, সাতক্ষীরা: ঘূর্ণিঝড় রেমালের জেরে গত দুই...

বিশ্বকাপের পূর্ণাঙ্গ সূচি

স্পোর্টস ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে আর মা...

মঙ্গলবার রাজধানীর যেসব মার্কেট বন্ধ

সান নিউজ ডেস্ক: প্রতি সপ্তাহের একেক দিন বন্ধ থাকে রাজধানীর ব...

ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে ঘূর্ণিঝড় রেমালের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ...

হত্যা মামলায় ১০ জনের যাবজ্জীবন

জেলা প্রতিনিধি : জয়পুরহাটে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে সাইদুল...

কালিগঞ্জে নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

মো. মাজহারুল ইসলাম, সাতক্ষীরা: সা...

রাজধানীতে ভূমিকম্প

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানী ঢাকাসহ...

মুন্সীগঞ্জে জাল ভোট দেয়ার চেষ্টাকালে আটক ২

মো. নাজির হোসেন, মুন্সীগঞ্জ: তৃতী...

তৃতীয় ধাপে ভোট পড়েছে প্রায় ৩৫ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ষষ্ঠ উপজেলা পরি...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা