ফিচার

রাগী বসের সাথে তাল মিলিয়ে চলার কৌশল

সান নিউজ ডেস্ক: অফিসের বস রাগী হবে, সেটি অনেকের কাছেই কাঙ্ক্ষিত। তবে আপনার বস যদি প্রচণ্ড রাগী হয় তাহলে তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলাটা আপনার জন্য একটু কঠিন হয়ে যেতে পারে। কর্মস্থলে খারাপ বা বাজে বস সংখ্যায় কি বেশি? আমেরিকান সাইকোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের হিসাব বলছে, শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই সংখ্যাটি আকারের দিক থেকে বিশাল! ৭৫ শতাংশ মার্কিন বলেছেন, তাঁদের কর্মজীবনে সবচেয়ে বেশি মানসিক চাপ সৃষ্টি করে থাকেন বস বা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। করপোরেট সংস্কৃতির পেশাদারির দিক বিবেচনায় নিলে, যুক্তরাষ্ট্রের স্থান তালিকার বেশ ওপরের দিকেই থাকবে। তা সেখানেই যদি অধস্তন কর্মীদের এই হাল হয়, তবে এ দেশে কেমন, একবার ভেবে দেখুন তো!

চলুন জেনে নেই কোন আচরণগুলো এক্ষেত্রে বেশি কার্যকরী হবে-

তার মতামতের যথার্থ মূল্যায়ন

বসের পরামর্শ অনুযায়ী চললে তার রাগের কারণ হওয়ার দরকার পড়বে না। তিনি যখন দেখবেন যে আপনি তার মতামতের পূর্ণ মূল্যায়ন করছেন তখন আপনার প্রতি রাগের বদলে তার একটি ইতিবাচক মনোভাব তৈরি হতে থাকবে। তাই আপনি যার অধীনে কাজ করছেন, তার মনের মতো করে কাজগুলো সম্পন্ন করার চেষ্টা করুন। পাশাপাশি নিজের কোনো মতামত থাকলে তা সুযোগ বুঝে বসের সঙ্গে আলাপ করুন যখন তার মন ভালো থাকবে। তবে অবশ্যই যখন তার মন মেজাজ খারাপ থাকবে,তখন নয়।

তার কথার প্রতি মনোযোগ বাড়িয়ে দিন

প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে অবশ্যই বসের মতের সঙ্গে মিল রেখেই চলতে হবে। তাই বস যখন কিছু বলবেন তাকে বুঝতে দিন যে আপনি তার কথা সম্পূর্ন মনোযোগ দিয়ে শুনছেন। আপনার বস যদি রেগে গিয়েও কথা বলেন তবে আপনি তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া না দেখিয়ে মনোযোগ দিয়ে শুনুন এবং বোঝার চেষ্টা করুন। যদিও অনেক সময় এটি কিছুটা কষ্টকর হয়ে যায়, তবে সেটার কোন প্রতিক্রিয়া দেখানো যাবেনা।তবে আপনার যদি কিছু বলার থাকে তবে তার বলা শেষ হলে তবে তাকে বুঝিয়ে বলতে পারেন আপনার বিষয়টি।

তার সঙ্গে আলোচনা করুন

বস যখন শান্ত থাকবেন তখন তার সঙ্গে কথা বলুন এবং জিজ্ঞাসা করুন আপনি কীভাবে কাজ করলে তা সঠিক হবে। যদি তিনি কোনো পরামর্শ না দেন, তাহলে আপনি আপনার উপায়গুলো তাকে ভালোভাবে বোঝান। একবার তিনি সেগুলোর যেকোনো একটিতে একমত হয়ে গেলে সেই কাজে লেগে পড়ুন। আপনার বস নিঃসন্দেহে আপনার থেকে অভিজ্ঞতাসম্পন্ন। তাই আপনার বুদ্ধিমত্তা এবং তার অভিজ্ঞতার সমন্বয় ঘটলে তার ফল ইতিবাচক হবে।

সঠিক শব্দ ব্যবহার

অনেক সময় শব্দের ভুল ব্যবহারে কথার অর্থ অনেকটাই বদলে যায়। তাই বসের সঙ্গে যেকোনো আলাপ করার সময় শব্দ ব্যবহারে সচেতন থাকুন। তিনি যে কথাগুলো বলছেন তা আপনি বুঝতে পারছেন কি না সেটিও বুঝতে দিন। ইতিবাচক থেকে কথা বলুন। বস রাগী হলেই তাকে সারাক্ষণ শত্রু ভাববেন না বা অন্য চোঁখে দেখবেন না। কারণ আপনারা দুজনই একই প্রতিষ্ঠানের কর্মী এবং সে আপনার বস সেটা অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে। সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক না থাকলে কাজ এগিয়ে নেওয়া মুশকিল হয়ে যাবে। তার সঙ্গে কথা বলার সময় নেতিবাচক শব্দ ব্যবহার এড়িয়ে চলুন।

দুঃখ প্রকাশ করার মানসিকতা রাখা

অনেক সময় বস রাগারাগি করলেও তার জন্য হয়তো আপনার আচরণই দায়ী। তাই তাকে উত্তেজিত করার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী হোন। যদি আপনি ভুল করে থাকেন, তাহলে এটি কাজ করবে। যদি ভুল না করে থাকেন তবুও এটি কাজ করবে কারণ তিনি আপনার কাছে এটি প্রত্যাশা করছে। দুঃখ প্রকাশ বা ক্ষমা চাওয়ার অভ্যাস আপনাকে আরও পরিপূর্ণ হতে সাহায্য করবে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

সান নিউজ/এনএএম

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

নিউইয়র্ক আ'লীগের সমাবেশে বিএনপির হামলা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিউইয়র্ক সফরকে...

কাদের মির্জার সহায়তায় ২ মাদক কারবারি আটক

নোয়াখালী প্রতিনিধি: জেলার বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদ...

সরকারের কোন ভ্রূক্ষেপ নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক: একদিকে দারিদ্র্য, অন্যদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠ...

রাজশাহীতে আরও সাত জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাজশাহী: রাজশাহীতে আরও সাত জনের মৃত্যু হয়ে...

ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে রাবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন 

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবাসিক হল ও ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে মানববন্...

বিশ্বকাপে চ্যালেঞ্জ নিতে তৈরি শামীম

স্পোর্টস ডেস্ক: তরুণ ব্যাটসম্যান শামীম পাটোয়ারি আস...

দীর্ঘ মেয়াদী অর্থায়নের প্রধান উৎস হবে পুঁজিবাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী...

দেড় কোটি মানুষের টিকার ডোজ সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশে এক কোটি ৫০ লাখ ২৫ হাজা...

বিশ্ব নেতাদের জোরালো পদক্ষেপ চান প্রধানমন্ত্রী

সাননিউজ ডেস্ক: আগামী প্রজন্মের জন্য একটি টেকসই ভবি...

বিপুল ভোটে দ্বিতীয়বার মেয়র হলেন শান্ত

নিজস্ব প্রতিনিধি, যশোর: যশোরের অভয়নগরে নওয়াপাড়া পৌরসভা সাধার...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা