রিক্সা চালকের সন্তান পেল জিপিএ-৫
শিক্ষা

রিক্সা চালকের সন্তান অলি পেল জিপিএ-৫

কামরুজ্জামান স্বাধীন, উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের উলিপুরে প্রায় ৪০ বছর থেকে রিক্সা চালিয়ে ঘাম ঝড়িয়ে সংসার চালান জহুরুল। ৬ শতকের বাড়িটিই তাঁর ঠিকানা।

আরও পড়ুন : বোয়ালমারীতে বোমা বিস্ফোরণে বিএনপির ৬ জন আটক

জহুরুলের বাড়ি উলিপুর পৌরসভাস্থ নারিকেল বাড়ি গ্রামে। আবাদি জমি ১শতকও নেই। ঘুম ভাঙ্গে সংসার চলবে কিভাবে আর সেই ঘুমের সঙ্গে থাকে কিভাবে সন্তান মানুষ হবে। তিন সন্তানের জনক জহুরুল বড় দুই মেয়ের বিয়ে দিয়েছেন রিক্সা চালিয়েই।

এই অভাব ও সংকটের সাথে সংগ্রাম করা রিক্সা চালক জহুরুলের পুত্র আল আমিন অলি হোসেন ২০২২ সালের এসএসসি পরিক্ষায় উলিপুর এমএস স্কুল এন্ড কলেজ থেকে জিপিএ - ৫ পেয়েছে।

রিক্সা চালক পিতা স্বপ্ন দেখছেন দেশের সর্বোচ্চ ডিগ্রি অর্জন করে মানুষের মত মানুষ হয়ে উঠুক। এদিকে সন্তান আল আমিন অলি হোসেনও স্বপ্ন দেখছেন পড়া-লেখা শেষ করে পিতা-মাতা ও শিক্ষকদের মুখে হাসি ফুটাবেন।

আরও পড়ুন : ভালুকা মুক্ত ও বিজয় দিবস উদযাপন

জহুরুলের সংসার চলে রিক্সা চালিয়ে এবং তাঁর স্ত্রী উলিপুরে কারু পণ্য নামের একটি বে-সরকারি প্রতিষ্ঠানে মাসিক ৩ হাজার টাকার চুক্তিতে কাজ করে। এই কাজের বিনিময় মাসের শেষে যা পায় তা দিয়ে সন্তানের পড়া-লেখার খরচ বহন করা ওই পিতা-মাতার পক্ষে দুঃসাধ্য হয়ে দাড়িয়েছে। জহুরুল দুঃখ কষ্ট করে সংসার চালালেও এ সময় এসে কিছুটা নির্বিকার। তবুও আশা করছেন সন্তানের পড়া-লেখা শেষ না পর্যন্ত একটি বৃত্তির ব্যবস্থা কেউ করলে মন্দ হয় না।

বুধবার (৩০ নভেম্বর) রাতে অলি হোসানের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় একটি জ্বীর্ণ রুমে তার পড়-লেখা করার টেবিল, এলোমেলো বই-খাতা। সে সময় কথা হয় অলি হোসেনের সাথে।

অলি জানায়, আমি সকল বিষয়ে জিপিএ - ৫ পেয়েছি আমার একান্ত চেষ্টা থেকে। পিতা রিক্সা চালালেও এবং আমার মা গার্মেন্টস কর্মী হলেও আমি আমার পিতা-মাতার বাধ্য সন্তান। আমার পিতা-মাতা যেভাবে আমার কাছে আশা করছিলেন আমি চেষ্টা করেছি মাত্র।

আরও পড়ুন : উলিপুরে পানিতে ডুবে গৃহবধূর মৃত্যু

শিক্ষকদের কুর্ণিশ করে অলি হোসেন জানায়, আমার শিক্ষা জীবনের সকল স্যারদের দোয়া ও আশির্বাদে এইটুকু পথ পাড়ি দিয়েছি, সামনে এর থেকেও বড় পথ আছে আমি সকলের কাছে দোয়া ও আশির্বাদ কামনা করছি যেনো সেই পথগুলোও সঠিকভাবে পাড়ি দিতে পাড়ি।

অলি হোসানের বাবা-মা সন্তানের জন্য দোআ ও সহযোগিতা কামনা করে বলেন, খুব কষ্ট করে আমরা আমাদের সন্তানটিকে তৈরি করার চেষ্টা করছি।

সান নিউজ/এইচএন

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

উলিপুরে ঝগড়াকে কেন্দ্র করে স্বামীর মৃত্যু

কামরুজ্জামান স্বাধীন, উলিপুর (কুড়িগ্রাম): কুড়িগ্রামের উলিপুর...

রপ্তানি আয় বেড়েছে দেড় লাখ কোটি টাকা

সান নিউজ ডেস্ক : বাণিজ্যমন্ত্রী...

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে

সান নিউজ ডেস্ক: আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বাংলাদেশে একটি...

ডিজিটাল বাংলাদেশের সংযুক্তির মহাসড়ক

সান নিউজ ডেস্ক : তিন দিনব্যাপী ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা-...

বিশ্বে প্রথম নাকে দেওয়ার টিকা চালু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্বে প্রথম নাকে দেওয়ার করোনাভাইরাসের ভ...

পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের শীতবস্ত্র বিতরণ

নোয়াখালী প্রতিনিধি: বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের উদ্যো...

পটুয়াখালীতে সাংস্কৃতিক কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

নিনা আফরিন, পটুয়াখালী: "সাংস্কৃতিক জাগরণ ও সম্প্রীতির ব...

মানুষের কথা ভাবতে চাইনি!

বিনোদন ডেস্ক : বাংলাদেশের জনপ্রিয়...

লক্ষ্মীপুরে টার্কিশ ফুড মেলা শুরু

সান নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের লক্ষ্...

ভবন থেকে পড়ে ২ শিশুর মৃত্যু

সান নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর কামরাঙ্গীরে একটি পাঁচতলা ভবনের ছাদ...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা