সংগৃহীত ছবি
রাজনীতি

নতুন কর্মসূচি দেবে বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকাসহ সারা দেশের মহানগর ও জেলায় খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশ ‘সফল করায়’ সন্তোষ প্রকাশ করেছে বিএনপি। পাশাপাশি আবারও বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তি, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি ও মূল্যস্ফীতির উর্ধ্বগতি, নজিরবিহীন দুর্নীতিসহ নানা ইস্যুতে কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন : চীনা ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের আহ্বান

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) বিকেলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল সোমবার (৮ জুলাই) রাত সাড়ে ৮টায় বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির ভাচুর্য়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

আরও পড়ুন : আন্দোলনে বিএনপির সমর্থন দুরভিসন্ধি

সভায় উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সালাহ উদ্দিন আহমেদ, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশনেত্রীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে পরবর্তী কর্মসূচি নির্ধারণের জন্য ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সংশ্লিষ্ট নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন। স্থায়ী কমিটির সদস্যরা মনে করেন— নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধি ও মূল্যস্ফীতির উর্ধ্বগতি, নজিরবিহীন দুর্নীতি দেশের ও দেশের বাইরের ব্যাংকগুলো থেকে ঢালাও ঋণ গ্রহণের ফলে ঋণফাঁদ সৃষ্টি হচ্ছে এবং জনগণের উপরে বাড়তি চাপ সৃষ্টি হচ্ছে।

আরও পড়ুন : প্রশ্নফাঁসে কারাগারে ১০ আসামি

‘এ বিষয়গুলোকে নিয়ে বিস্তারিত তথ্য সমৃদ্ধ প্রতিবেদন তৈরি করে জনগণের সামনে নিয়ে আসার জন্য লিফলেট বিতরণ, সমাবেশ, মিছিল ইত্যাদির মাধ্যমে জনসচেতনতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। আগামীতে এ বিষয়ে কর্মসূচির গ্রহণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে’, বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করেন মির্জা ফখরুল।

তিনি জানান, সম্প্রতি লালমনিরহাট ও ঠাকুরগাঁও সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত হওয়ার ঘটনায় সভায় তীব্র নিন্দা জানানো হয়। সেই সঙ্গে সীমান্ত হত্যা বন্ধের জন্য সরকারি কোনো উদ্যোগ না থাকায় তীব্র অসন্তোষ প্রকাশ করা হয়।

সান নিউজ/এমআর

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

মারামারি থামাতে গিয়ে চড় খেলেন আরেকজন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির মেট্রোতে করে হা...

একসঙ্গে মঞ্চ মাতালেন নচিকেতা-ফেরদৌস

বিনোদন ডেস্ক: সে প্রথম প্রেম আমার নীলাঞ্জনা গান গেয়ে লাখো তর...

সারাদেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি 

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের প্রথম সাবমেরিন কেবল (সিমিউই-৪) রক্ষণ...

৬০ কি.মি ঝোড়ো হাওয়ার শঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা, ফরিদপুর,...

শেখ হাসিনা ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন ইসলামী ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক : শেখ হাসিনা আন্তঃব্যাংক ফুটবল টুর্নামেন্ট-...

ছুরিকাঘাতে মাছ ব্যবসায়ী খুন

জেলা প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের আনোয়ারায় মো. জালাল (৩৭) নামে এক...

নৈশ প্রহরীকে হত্যা করে ইজিবাইক চুরি

জেলা প্রতিনিধি: গাইবান্ধার পলাশবাড়িতে দুদু মিয়া (৬০) নামে এ...

শিক্ষার্থীরা গণপদযাত্রায় অংশ নিতে জড়ো হচ্ছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: পূর্বঘোষিত গণপদযাত্রা কর্মসূচিতে অংশ নিতে...

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ১৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান...

সন্ধ্যার মধ্যে ঝড়ের আভাস

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে দেশের ৭টি অঞ্চলের ওপ...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা