বিশেষ সংবাদ

বিশেষ সংবাদ

বাণিজ্য

পূর্ত ও রক্ষণাবেক্ষণ সংক্রান্ত ১১টি প্রস্তাবের অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে পূর্ত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ সংক্রান্ত ১১টি প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে। বুধবার (৯ জুন) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। এতে ব্যয় হবে দুই হাজার ৫৭৯ কোটি ৩০ লাখ ৭৯ হাজার ৬৩০ টাকা।
বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে অনুমোদিত ক্রয় প্রস্তাবগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন অর্থমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো.শামসুল আরেফিন।
এসময় অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আজ অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১৬তম এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২০তম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের জন্য ১১টি প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। ক্রয় কমিটির প্রস্তাবগুলোর মধ্যে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের ছয়টি, স্থানীয় সরকার বিভাগের দুটি, জননিরাপত্তা বিভাগের একটি, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের একটি এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের একটি প্রস্তাব ছিল।’
তিনি বলেন, ‘কমিটির অনুমোদিত ১১টি প্রস্তাবের মোট অর্থের পরিমাণ দুই হাজার ৫৭৯ কোটি ৩০ লাখ ৭৯ হাজার ৬৩০ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে জিওবি হতে ব্যয় হবে ৮৯০ কোটি ৬২ লাখ ৩১ হাজার ৫৮ টাকা এবং এডিবি, এএফডি ও ইআাইবি ঋণ এক হাজার ৬৮৮ কোটি ৬৮ লাখ ৪৮ হাজার ৫৭২ টাকা।’
এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. শামসুল আরেফিন বলেন, ‘বৈঠকে আজ সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের ছয়টি প্রস্তাব ছিল। সবগুলো অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ‘এলেঙ্গা-হাটিকামরুল-রংপুর মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ’ প্রকল্পের প্যাকেজ নং ডব্লিউপি-১৩ এর আওতায় হাটিকামরুল ইন্টারচেইঞ্জ নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য এক ধাপ দুই খাম পদ্ধতিতে দরপত্র আহ্বান করা হয়। এর বিপরীতে ১৪টি দরপত্র জমা পড়ে। যার মধ্যে ১২টি রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে কনস্ট্রাকশন ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং ব্যুরো গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেডকে ৭৪৩ কোটি ২৮ লাখ ৩৫ হাজার ২৮৩ টাকায় প্যাকেজ নং ডচ-১৩ এর পূর্ত কাজ ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি।’
তিনি বলেন, প্যাকেজ নং ডব্লিউপি-০৫ পূর্ত কাজ ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ সম্পাদনের লক্ষ্যে এক ধাপ দুই খাম পদ্ধতিতে দরপত্র আহ্বান করা হয়। এতে ১৩টি দরপত্র জমা পড়ে। যার মধ্যে ১২টি রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান আব্দুল মোনেমকে ৬০১ কোটি ১০ লাখ ৯৫ হাজার ৪৭৪ টাকায় অনুমোদন দিয়েছে কমিটি।’
বৈঠকে অনুমোদিত অন্যান্য প্রকল্পগুলো হলো- ‘কুমিল্লা (টমছম ব্রিজ)-নোয়াখালী (বেগমগঞ্জ)’ আঞ্চলিক মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের প্যাকেজ নং পিডব্লিউ-০১ এর পূর্ত কাজ সম্পাদনে ১৯৩ কোটি ৮৪ লাখ ৫০ হাজার টাকায় অনুমোদন দেয়া হয়। কাজটি যৌথভাবে শামীম এন্টারপ্রাইজ প্রাইভেট লিমিটেড এবং ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডকে দেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে বিবেচ্য প্যাকেজের মেয়াদ বৃদ্ধি এবং অতিরিক্ত কাজ যুক্ত হওয়ায় ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ৪৭ কোটি ৮৮ লাখ ৩৪ হাজার ৫০২ টাকার পূর্ত কাজ ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হয়।
‘কুমিল্লা (টমছম ব্রিজ)-নোয়াখালী (বেগমগঞ্জ)’ আঞ্চলিক মহাসড়ক ৪-লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের প্যাকেজ নং পিডব্লিউ-০৩ এর পূর্ত কাজ সম্পাদনে ১৯৪ কোটি ৯৮ লাখ ৯৫ হাজার ৮৪৭ টাকায় অনুমোদন দেয়া হয়। কাজটি যৌথভাবে তাহের ব্রাদার্স লিমিটেড, রানা বিল্ডার্স প্রাইভেট লিমিটেড এবং মেসার্স হাসান বিল্ডার্সকে দেয়া হয়। পরবর্তীতে বিবেচ্য প্যাকেজের মেয়াদ বৃদ্ধি এবং অতিরিক্ত কাজ যুক্ত হওয়ায় ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ৩৯ কোটি ২১ লাখ ২৫ হাজার ৩২৮ টাকার পূর্ত কাজ ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে।
এছাড়া গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কে পণ্য পরিবহনের উৎসমুখে এক্সেল লোড নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র স্থাপন প্রকল্পের প্যাকেজ নং পিডব্লিউ-০১ এর পূর্ত কাজ সম্পাদনের জন্য উম্মুক্ত পদ্ধতিতে দরপত্র আহ্বান করা হয়। এতে দুটি দরপত্র জমা পড়ে, যা রেসপনসিভ হয়। দরপত্রের সব প্রক্রিয়া শেষে টিইসি কর্তৃক সুপারিশকৃত রেসপনসিভ সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডকে ৩০১ কোটি ৩৫ লাখ ৬১ হাজার ৫৮২ টাকায় প্রকল্পের পূর্ত কাজ ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।
‘গুরুত্বপূর্ণ আঞ্চলিক মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ (সিলেট জোন)’ প্রকল্পের প্যাকেজ নং ডব্লিউডি-০৫ এর পূর্ত কাজ সম্পাদনে ১৮৬ কোটি ৯৮ লাখ ১৭ হাজার ৮৫৫ টাকায় অনুমোদন দেয়া হয়। কাজটি যৌথভাবে শামীম এন্টারপ্রাইজ প্রাইভেট লিমিটেড, মেসার্স জন্মভূমি নির্মাতা প্রাইভেট এবং ওহিদুজ্জামান চৌধুরীকে দেয়া হয়। পরবর্তীতে বিবেচ্য প্যাকেজের মেয়াদ বৃদ্ধি এবং অতিরিক্ত কাজ যুক্ত হওয়ায় ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ১৬ কোটি ৮১ লাখ ৭১ হাজার ৪৩৮ টাকায় পূর্ত কাজ ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

সান নিউজ/এমএইচ

Copyright © Sunnews24x7
সবচেয়ে
পঠিত
সাম্প্রতিক

২০ দিনের পরিচয়ে বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি, দিনাজপুর : দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার মেয়...

স্ট্যাম্প উড়িয়ে আম্পায়ারকে মারতে গেলেন সাকিব!

স্পোর্টস ডেস্ক: একটি অনাকাঙ্খিত ঘ...

পাকিস্তানের সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক চায় ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চিরবৈরী প্রতিবেশি পাকিস্তানের সঙ্গে &lsq...

মডেল মসজিদ নির্মাণে ‘ভয়াবহ’ দুর্নীতির অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকারি অর্থে মডেল মসজিদ নির্মাণে...

করোনা : ১ কোটি ৬৫ হাজার ডোজ টিকা দেওয়া শেষ

সাননিউজ ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাই...

জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ইলেকট্রিক প্রাইভেটকার

সান নিউজ ডেস্ক : বর্তমানে বাজার ছেয়ে গেছে বিভিন্ন অত্যাধুনি...

২৮ স্ত্রী সাথে নিয়ে বরযাত্রা!

সাননিউজ ডেস্ক: বিশ্ব এখন হাতের মু...

সমবয়সীদের প্রেম বেশি টেকে! 

লাইফস্টাইল ডেস্ক: প্রেম একটি অন্য...

হুবহু করোনার মতো নতুন ভাইরাস শনাক্ত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোন...

লাইফস্টাইল
বিনোদন
sunnews24x7 advertisement
খেলা